,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

জঙ্গীবাদমুক্ত স্বদেশ প্রতিষ্ঠায় গণপ্রতিরোধের ডাক মহিউদ্দিন চৌধুরীর

aনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ১৪ দল চট্টগ্রামের সমন্বয়ক আলহাজ্ব এ.বি.এম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, জঙ্গীবাদমুক্ত স্বদেশ প্রতিষ্ঠায় মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের জনগণকে সংগঠিত করে পাড়ায় মহল্লায় ওয়ার্ডে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার এখনই সময়। চট্টগ্রামের মাটি শহীদের রক্তে রঞ্জিত। এই মাটিকে জঙ্গীবাদ বিরোধী দুর্ভেদ্য ঘাটিতে পরিণত করতে সকলের সম্মিলিত রাজপথের ঐক্য চাই।

 রবিবার ২৪ জুলাই  বিকেলে নগরীর আগ্রাবাদস্থ বাদামতলী মোড় সংলগ্ন ডাল্লা মার্কেট চত্বরে চট্টগ্রাম ১৪ দলের সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ বিরোধী ধারাবাহিক কর্মসূচীর জনসমাবেশে সভাপতির ভাষণে তিনি  এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, জঙ্গীবাদী শক্তির এজেন্টরা আমাদের চারপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে। ধর্মীয় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তারা ঢুকে পড়েছে। তাদের আমরা চিহ্নিত করেছি। আমাদের অনুসন্ধানী টিমের রিপোর্টে চিহ্নিত জঙ্গীবাদ সংশ্লিষ্ট দুর্বত্তদের অবশ্যই গ্রেফতার করতে হবে। তিনি ১৪ দলের নেতাকর্মীদের বলেন, শুধু সভা সমাবেশ নয়, মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে জঙ্গী তৎপরতার প্রতিরোধে উদ্বুদ্ধ করুন। এমনকি নিজের পরিবারকেও জঙ্গীবাদ বিরোধী জনযুদ্ধে অংশীদার করুন। তিনি ১৪ দল আহত সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ বিরোধী কর্মসূচির অংশ হিসেবে ২৯ জুলাই শুক্রবার বন্দর থানা এলাকায় ও ৩০ জুলাই শনিবার চকবাজার থানা এলাকায় জনসমাবেশ ও পদযাত্রা এবং জনসংযোগ করার নির্দেশনা দেন।

সমাবেশ শেষে মহিউদ্দিন চৌধুরী সহ আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলের নেতাকর্মীরা বাদামতলী মোড় থেকে পদযাত্রা শুরু করে বারেক বিল্ডিং মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।

 মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, দক্ষিণ জেলার সহ সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, জাসদ স্থায়ী কমিটির সদস্য ইন্দ নন্দন দত্ত, গণতন্ত্রী পার্টির জেলা সাধারণ সম্পাদক তাজের মল্লুক, ওয়াকার্স পার্টির জেলা সাধারণ সম্পাদক শামসুদ্দিন খালেদ সেলিম, জাসদ মহানগরীর সহ সভাপতি এ টি এম জাফরুল আলম, সাম্যবাদী দলের আহ্বায়ক অমূল্য বড়–য়া, গণ আজাদী লীগের জেলা আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম আশরাফী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, আইন সম্পাদক এডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক আলহাজ্ব মহিউদ্দিন বাচ্চু, কাউন্সিলরদের পক্ষে নাজমুল হক ডিউক। সভা মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, মহানগর জাসদের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবুল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনান, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, দক্ষিণ জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ দাশ, মহানগর আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, ধর্ম সম্পাদক হাজী জহুর আহমদ, শ্রম সম্পাদক আবদুল আহাদ, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা: ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী, গণতন্ত্রী পার্টির স্বপন সেন, ন্যাপের মিটুল দাশ গুপ্ত, মহানগর আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য নজরুল ইসলাম বাহাদুর, সৈয়দ আমিনুল হক, গোলাম মোহাম্মদ চৌধুরী, সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, অমল মিত্র, থানা আওয়ামী লীগের আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর চৌধুরী সিইনসি স্পেশাল, মোজাহেরুর ইসলাম চৌধুরী, ছিদ্দিক আলম, শ্রমিক লীগের বখতেয়ার উদ্দিন খান, কাজী মাহবুবুল হক চৌধুরী এটরী, মহানগর যুবলীগের দেলোয়ার হোসেন খোকা, ফরিদ মাহমুদ প্রমুখ।

মতামত...