,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

জলাবদ্ধতা থেকে নগরবাসীকে স্থায়ীভাবে মুক্তি দেওয়ার চেষ্টা করছিঃ মেয়র

azm nasirনিজস্ব প্রতিবেদক,বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ চট্টগ্রাম মহানগরীর জলাবদ্ধতাকে উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া সমস্যা দাবি করে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, জলাবদ্ধতা থেকে নগরবাসীকে স্থায়ীভাবে মুক্তি দেওয়ার চেষ্টা করছি। এটি সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। আমার হাতে আলাদীনের চেরাগ নেই। চাইলেই রাতারাতি এ সংকট থেকে নগরবাসীকে মুক্তি দিতে পারি না।

সোমবার (১৩ জুন) বিকেলে ভারী বর্ষণ ও জোয়ারের পানিতে নগরীর নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয় । লঘুচাপের কারণে কয়েকদিন ধরে সূর্যের দেখা না মিলছে না।  দুর্ভোগে পড়ে লাখো মানুষ। উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা দেখা দেয় নগরবাসীর মধ্যে। পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিস জানায়, চট্টগ্রামে গেল ২৪ ঘণ্টায় ১৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

আলাপচারিতায় মেয়র বলেন, আমি দায়িত্ব নিয়েছি ১১ মাস হলো। জলাবদ্ধতা হচ্ছে এ নগরীর পুরোনো সমস্যা। উত্তরাধিকার সূত্রে এটি আমি পেয়েছি। আশার কথা হচ্ছে, অন্যান্যবারের মতো এবার জলাবদ্ধতা হচ্ছে না। কারণ আমরা প্রতিদিনই খাল ও নালা খনন করছি।

চট্টগ্রাম ব্যতিক্রম শহর । এ নগরী হচ্ছে সারা দেশে ব্যতিক্রম। পাহাড়-নদী-সাগর-অরণ্যে সমৃদ্ধ এমন নগরী দ্বিতীয়টি নেই। এখানে নির্বিচারে বৈধ-অবৈধভাবে পাহাড় কাটা হচ্ছে। অপরিকল্পিত পাহাড় কাটার ফলে এখন সব পাহাড় ন্যাড়া। বাতাসের সাথে ধূলিবালি উড়ছে। বড় একটি অংশ সিলট্রেশন হচ্ছে। আপনারা দেখবেন বৃষ্টিপাত বন্ধ হলে সড়কের ওপর বালির আস্তরণ পড়ে যাচ্ছে। এটি চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতার জন্যে বড় সমস্যা। জলাবদ্ধতা থেকে পরিত্রাণ দিতে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ হয়েছে বলে মেয়র জানালেন ।

 মদুনাঘাট থেকে পতেঙ্গা নেভাল একাডেমি পর্যন্ত বেড়িবাঁধ ও ২৬টি খালের মুখে রেগুলেটরসহ স্লুইসগেট নির্মাণ এ মেগা প্রকল্প নেয়া হয়েছে। মেয়র বলেন,্ল নগরীর কিছু এলাকা আছে অমাবস্যা-পূর্ণিমার ভরা জোয়ারের সময় প্লাবিত হয়। কয়েকদিন আগে বলীরহাটে সরেজমিন পরিদর্শন করেছি অবস্থা। জোয়ারেই প্লাবিত হচ্ছে বড় একটি এলাকা। দীর্ঘস্থায়ী সমাধান ছাড়া এ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়। সিটি করপোরেশনের আর্থিক অবস্থা যা তাতে এত বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন সম্ভব নয়। তাই পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাহায্য চেয়েছি। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চট্টগ্রামের উন্নয়নের ব্যাপারে অত্যন্ত আন্তরিক। আশাকরি, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় হয়ে একনেকে এ বছর মেগা প্রকল্পটি পাস হবে।

তিনি বলেন, আমি আশাবাদী। আমি চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করি। জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি শুধু নয়, চট্টগ্রামকে বিশ্বমানের নগরী হিসেবে গড়ে তুলবো। সবুজ ও পরিচ্ছন্ন নগরী হবে চট্টগ্রাম।

মতামত...