,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

জাপানের বুলেট ট্রেন ভারতে

Rail ঢাকা,০৯ ডিসেম্বর (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম)::বিশ্বের দ্রুততম এই ট্রেন জাপানি প্রযুক্তির মাধ্যমে ভারতের মুম্বাই থেকে আহমেদাবাদ পর্যন্ত চলাচল করবে।

আগামী শনিবার মুম্বাইয়ে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ মোদী বিশ্বের দ্রুতগতি সম্পন্ন এ ট্রেন চালুর চুক্তিতে আনুষ্ঠানিক স্বাক্ষর করবেন বলে টোকিও জানিয়েছে।

বুলেট ট্রেন জাপানের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি। এটি ঘণ্টায় ৩২০ কি.মি পথ অতিক্রম করতে পারে। ২০০৭ সালে চালুর পর চলতি বছর এপ্রিলে পরিকল্পনায় থাকা ট্রেনটি ঘণ্টায় ৬০০ কিমি ছাড়িয়েছে।

জাপান সরকার বিশ্বের বিভিন্ন দেশে শিনকানসেন রপ্তানি করার সিদ্ধান্ত নেই। সেই অনুযায়ী, ভারতে চালুর ফলে জাপানের বাইরে তাইওয়ানের পর ভারত শিনকানসেন চালুর সিদ্ধান্ত নিল।

প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, আগামী শুক্রবার আবে তিনদিনের সফরে ভারতে যাচ্ছেন। এসময় বিভিন্ন বিষয়ে চুক্তি হওয়ার কথা থাকলেও ‘বুলেট ট্রেন’ বিষয়টি মূখ্য।

কর্মকর্তারা আরও জানিয়েছেন, শিনকানসেনের বিষয়ে ইতোমধ্যে ভারত সরকার সিদ্ধান্ত নিয়ে রেখেছে। শনিবার আনুষ্ঠানিক চুক্তি হবে।

প্রায় ৯৮০ বিলিয়ন রুপি খরচায় ২০১৭ সালে শুরুর দিকে এ বুলেট ট্রেনটির অবকাঠামোগত কাজ ভারতে শুরু হবে, যা শেষ হতে সময় নেবে ২০২৩ সাল পর্যন্ত।

২০১৩ সালের মে মাসে ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এক সম্মেলনে শিনজো আবের সাথে শিনকানসেন ভারতে চালুর বিষয়ে কথা বলেন। সেই অনুযায়ী জাপানের প্রকৌশলীরা ভারতে ঘুরেও আসেন। এরপর থেকে মূলত শিনকানসেন চালুর আনুষ্ঠিক সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় ছিল। গত মাসে নরেন্দ্র মোদী এশিয়ান সম্মেলনে এ বিষয়টি শিনজো আবেকে অবহিত করেন।

ওদিকে, টোকিওর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মুম্বাই শহর থেকে আহমেবাদ পর্যন্ত যেতে ট্রেনের ১০ ঘণ্টা সময় লাগলেও শিনকানসেন চালুর ফলে তা দুই ঘণ্টায় নেমে আসবে। এমনকি ৩৫ হাজার ৮০০ যাত্রী পরিবহন করতেও সক্ষম হবে।

এর আগে গত অক্টোবরে ইন্দোনেশিয়া জাপানের এই প্রযুক্তি নেওয়ার কথা ঘোষণা করলেও পরবর্তীতে তারা চীনের ট্রেন চালু করার সিদ্ধান্ত নেন। সর্বশেষ ভারতে এটি চালুর মধ্যে দিয়ে শিনকানসেন ট্রেনের প্রসার আরও এক ধাপ বাড়ল।

মতামত...