,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

জাপায় হিন্দুদের জন্য ৩০ আসন সংরক্ষিত থাকবে সংসদ নির্বাচনে: এরশাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি (জাপা) হিন্দুদের জন্য ৩০টি আসন সংরক্ষিত থাকবে বলে জানিয়েছেন দলের চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। তিনি বলেন, সমাজের যারা বিশিষ্ট ব্যক্তি, হিন্দুদের মধ্যে যারা বিজ্ঞ ব্যক্তি, তাদের সংসদে নিয়ে আসব।

শনিবার ২৭ আগস্ট দুপুরে রাজধানীর বনানীতে নিজের কার্যালয়ে শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায়ের ব্যক্তিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে এরশাদ এ ঘোষণা দেন।

অনুষ্ঠানে হিন্দু সংস্কার সমিতির সহসভাপতি হিমাদ্রী শেখ রায় আগামী সংসদ নির্বাচনে ১০০ আসনে হিন্দু প্রার্থী দেয়ার দাবি করেন। এর জবাবে এরশাদ বলেন, ১০০ আসনে হিন্দুদের প্রার্থী করার কথায় আমি খুবই খুশি হয়েছি। আমি যে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান, আমি যে মুসলমান, সেটা আপনারা (হিন্দু সম্প্রদায়) ভুলে গেছেন। ১০০ প্রার্থী যদি ভালো থাকে ১০০ প্রার্থী আমি আপনাদের মধ্য থেকে দেব।

এরশাদ বলেন, আমাদের ইলেকশন মেনিফেস্টো আছে। ওখানে মহিলাদের সংরক্ষিত আসন আছে ৫০টি। আমি বলেছি, আপনাদের জন্য ৩০টি সংরক্ষিত আসন এখন থাকবে। আপনারা এতে খুশি কি না?

এ সময় উপস্থিত হিন্দু সম্প্রদায়ের ব্যক্তিরা ‘খুশি’ বললে এরশাদ বলেন, ‘প্রশ্ন হলো, আগামী নির্বাচনে আমাদের সাহায্য-সহযোগিতা করতে হবে। করবেন তো? মনে রাখবেন, আমি কিন্তু সব দলের ঊর্ধ্বে। আমি আমার দেশের জনগণকে ভালোবাসি, এখানে হিন্দু-মুসলমানের কোনো বিভেদ নেই।’

এরশাদ বলেন, ‘আমাদের বিসিএস পরীক্ষায় হিন্দুদের সংখ্যা খুব কম ছিল। সেটা কাটিয়েছি। আজ ২৪ জন সচিব, ১৮ জন এসপি হিন্দু। তার কারণ আমি।’

তিনি বলেন, ‘আমার সময় হিন্দুদের সংখ্যা ছিল ২১ পার্সেন্ট, এখন নেমে এসেছে ৯ পার্সেন্টে। আমার সময় একটা হিন্দু মন্দিরে কেউ অত্যাচার করেনি, কোনো পুরোহিতকে হত্যা করেনি, কোনো হিন্দুর জমি দখল করেনি, করতে দিইনি আমি। কারণ ওরা আমার ভাই।’

এরশাদ বলেন, ‘একটা কথা মনে রাখবেন, ২১ পার্সেন্টে থেকে চলে এসেছে ৯ পার্সেন্টে, কেউ কেউ বলে ফাইভ পারসেন্ট, কেন?। কী কারণে হিন্দুরা চলে যাচ্ছে, কেন তারা অশান্তিতে ভুগছে। কে তাদের নিরাপত্তা দিতে পারবে, সে কথা ভাবতে হবে। আমি পারবো নিরাপত্তা দিতে আপনাদের, আমি পারবো।’

জাপার সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সুনীল শুভ রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন জাপার জ্যেষ্ঠ কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ, মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, দলের নেতা কাজী ফিরোজ রশীদ, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু প্রমুখ।

মতামত...