,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

জামায়াতের হরতালে সাড়া দেবে না মানুষ

স্টাফ রিপোর্টার, বিডিনিউজ nasim1রিভিউজঃ জামায়াত নেতা মীর কাসেমের ফাঁসির রায়ে জনগণের প্রত্যাশা পূরণ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেছেন, জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী রায় হয়েছে। এতে জনমনে স্বস্তি এসেছে। জামায়াতের ডাকা হরতালে সাড়া দেবে না মানুষ। তাদের হরতালে জনগণের কোনো সমর্থন নেই। হরতালে জনজীবন স্বাভাবিক থাকবে বলেও মনে করেন তিনি।

জামায়াত নেতা মীর কাসেমের ফাঁসির রায় বহাল থাকায় তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মঙ্গলবার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলটির সম্মেলন উপলক্ষে গঠিত অভ্যর্থনা উপকমিটির বৈঠক শেষে সাবাদিকদের নাসিম বলেন, ‘দেশের জনগণের প্রত্যাশা ছিল মীর কাসেমের ফাঁসি হোক। জনগণের সেই প্রত্যাশাই আজ পূরণ হয়েছে। এখন অপেক্ষা ফাঁসি কার্যকরের।’

জামায়াতের হরতাল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘নেতাদের ফাঁসির রায় হলেই জামায়াত হরতাল ডাক দেয়। তাদের হরতালে জনগণের কোনো সমর্থন নেই। হরতালে সবকিছু স্বাভাবিক থাকবে। জনগণ তাদের হরতালে সাড়া দেবে না।’

মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডের রায়ের বিরুদ্ধে জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর রিভিউ আবেদন নাকচ করে দিয়েছে আজ আপিল বিভাগ। এখন কেবল রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন করার সুযোগ রয়েছে এই মানবতাবিরোধী অপরাধীর। সে আবেদন নাকচ হলে রাষ্ট্রপক্ষ যে কোনো সময় দণ্ড কার্যকরের উদ্যোগ নিতে পারবে।

কাদের মোল্লা, কামারুজ্জামান, আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদ ও মতিউর রহমান নিজামীর পর কাসেম আলী পঞ্চম ব্যক্তি যিনি সর্বোচ্চ আদালত থেকে প্রাণদণ্ড পেলেন।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সসম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘আমাদের নির্বাচনী ইশতেহার ছিল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করা। সরকার সে অনুযায়ী কাজ করছে। আইন অনুযায়ী অনেক যুদ্ধারপরাধীর রায় কার্যকর হয়েছে। আমরা আশা করি সকল প্রকার আইনি প্রক্রিয়া শেষে করে মীর কাসেমের ফাঁসি কার্যকর করা হবে।’

মতামত...