,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

জিয়া কে সাবেক রাষ্ট্রপতি বলা যাবে না

জিয়াউর রহমান ক্ষমতা দখল করেছিল হত্যা, ক্যু, ষড়যন্ত্রের রাজনীতির মাধ্যমে,বিএনপির জন্ম গণতন্ত্রের মধ্য দিয়ে হয়নি বলে মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন,  জিয়ার ক্ষমতা দখল অবৈধ। সে সংবিধান লঙ্ঘন করেছে, আর্মি রুলস অ্যান্ড অ্যাক্ট লঙ্ঘন করেছিল। নিজেকে নিজে রাষ্ট্রপতি ঘোষণা দিয়েছিল। শুধু তা-ই না, একাধারে সেনাপ্রধান ও রাষ্ট্রপতি। একই অঙ্গে দুই রূপ নিয়ে রাষ্ট্র শাসন করেছিল। ঠিক আইউব খানের মতো।’
জিয়াউর রহমান ও এরশাদকে ‘অবৈধ রাষ্ট্রপতি’ আখ্যায়িত করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘হাইকোর্টের স্পষ্ট রায় আছে, জিয়াউর রহমানের ক্ষমতা দখল অবৈধ। এরশাদের ক্ষমতা দখল অবৈধ। তাই পঞ্চম ও সপ্তম সংশোধনী বাতিল ঘোষণা হয়েছে। আর যারা একবার উচ্চ আদালত থেকে অবৈধ বলে ঘোষিত হয়েছে, তার মানে জিয়াউর রহমানকে যতই রাষ্ট্রপতি রাষ্ট্রপতি বলা হোক, তাকে কিন্তু সাবেক রাষ্ট্রপতি বলা যাবে না। যদি বলা হয়, তাহলে হাইকোর্টের রায়কে লঙ্ঘন করা হবে। কারণ তার ক্ষমতা অবৈধ। সে যেসব মার্শাল ল অরডিন্যান্স জারি করেছে, সংবিধান সংশোধন বা যেসব আইন করেছে, সব বাতিল বলে ঘোষণা হয়েছে। কাজেই এখন সাবেক প্রেসিডেন্ট এরশাদ বা জিয়াউর রহমান, কেউ কিন্ত আর সাবেক প্রেসিডেন্ট না।Ziaur Rahman কারণ তারা ক্ষমতা দখলকারী। উচ্চ আদালত যখন এই ঘোষণা দেয়, তখন সকলকে এটা মানতেই হবে।’

মতামত...