,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

জেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন,চলছে গণনা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ২৮ ডিসেম্বর,বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো জেলা পরিষদ নির্বাচন।

বুধবার সকাল ৯টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে বিরতিহীনভাব চলে দুপুর ২টা পর্যন্ত।

দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর আগারগাঁও তালতলা সরকারি কলোনি উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শন করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ। এ সময় তিনি প্রিজাইডিং কর্মকর্তাসহ অন্যান্য নির্বাচনী কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভোটের বিষয়ে আলোচনা করেন।

প্রতিটি জেলায় একজন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ১৫ জন সাধারণ এবং পাঁচজন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ভোট হয়।

সংসদ, সিটি করপোরেশন, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন পরিষদে জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচন হলেও জেলা পরিষদ আইনে প্রত্যক্ষ ভোটের বিধান নেই।

জেলার অন্তর্ভুক্ত সিটি করপোরেশনের (যদি থাকে) মেয়র ও কাউন্সিলর, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান এবং ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যদের ভোটে জেলা পরিষদের নতুন প্রতিনিধি নির্বাচিত হবেন।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে পুলিশ, ব্যাটালিয়ন আনসার ও আনসার ভিডিপির ২০ জন করে সদস্য মোতায়েন করা হয়।

ইসির জনসংযোগ পরিচালক এস এম আসাদুজ্জামান জানান, জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, সাধারণ ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে মোট প্রার্থীর সংখ্যা ৩ হাজার ৯৩৮ জন।

তিনি জানান, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ২১ জন রয়েছে। চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ৩৯ জেলায় ১২৪ জন। সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৬৪ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৬৮ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী এখন ২ হাজার ৯৮৬ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৮০৬ জন।

এই নির্বাচনে ৬১ জেলায় ৬৩ হাজার ১৪৩ জন ভোটার। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪৮ হাজার ৩৪৩ জন এবং নারী ভোটার ১৪ হাজার ৮০০ জন।

৯১৫টি ভোটকেন্দ্রে ভোটকক্ষ ১ হাজার ৮৩০টি। প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় ওয়ার্ডভিত্তিক ভোটকেন্দ্র স্থাপন করা হয়।

মতামত...