,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া সমকামী !

a আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ আমেরিকার প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পের নগ্ন ছবি নিয়ে তোলপাড় সে দেশের সংবাদমাধ্যম। জানা গেছে, ফরাসি পত্রিকার জন্য বিশেষ ফটোশ্যুট করেছিলেন প্রাক্তন মডেল। আমেরিকার প্রথম শ্রেণির সংবাদপত্রে মেলানিয়ার বেশ কিছু নগ্ন ছবি ছাপা হয়েছে। ছবিতে তার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ভঙ্গিতে দেখা যাচ্ছে আরও এক নারীকে। দু’জনেই নগ্ন। সমপ্রেমী থিমের এই ছবি তোলা হয়েছিল ১৯৯৫ সালে, যখন ট্রাম্প পত্নীকে মেলানিয়া নাউস নামে চিনত মডেলিং দুনিয়া। তিনি নিজে অবশ্য এই পেশায় ‘মেলানিয়া কে’ নামটিই ব্যবহার করতেন। তখন মেলানিয়ার বয়স মাত্র ২৫ বছর। জানা গেছে, ম্যানহাটনের ওই ফটোশ্যুটের ৩ বছর পর শিল্পপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। একটি ছবিতে দেখা গেছে, খাটের ওপর সম্পূর্ণ নগ্ন মেলানিয়া শুয়ে রয়েছেন। তাকে জড়িয়ে শুয়ে রয়েছেন নগ্ন স্ক্যানডিনেভিয়ান মডেল এমা এরিকসন। অন্য একটি ছবিতে মেলানিয়ার দিকে চাবুক উঁচিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছেন এরিকসন।

তার পরনে স্টকিংস, একটি লো-কাট বাস্টিয়ার, হাই হিল বুটস এবং একটি দীর্ঘ রোব। সবকিছুই জন গ্যালিয়ানোর ডিজাইন। ভঙ্গিটা এমনই যে দেখে মনে হয়, মেলানিয়াকে চাবকানোর চেষ্টা করছেন এরিকসন। তবে দ্বিতীয় ছবিতে মেলানিয়া পরে রয়েছেন স্কিন-টাইট বাউন এবং হাই হিলস। বলা বাহুল্য, এই ছবিও সমকামের ইঙ্গিতবাহী। ছবিগুলো তত্‍কালীন জনপ্রিয় ফরাসি পত্রিকা ম্যাক্স-এর জন্য তোলা হয়েছিল বলে জানা গেছে।

ক্যামেরার পিছনে ছিলেন বিখ্যাত ফ্রেঞ্চ ফ্যাশন ফটোগ্রাফার জার্ল আল দ্য বাসভিল। চেলসির একটি স্টুডিও অ্যাপার্টমেন্টে দুই দিন ধরে শ্যুটিং হয়েছিল। শুটিংয়ের কয়েকটি অংশ বাড়ির ছাদে করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন আলোকচিত্রী। তার দাবি, চূড়ান্ত পেশাদার হিসেবেই এরিকসনের সঙ্গে কাজ করেছিলেন মেলানিয়া। সমকামী থিম ছাড়াও সেই সময় মেলানিয়ার বেশ কিছু ন্যুড ছবি তুলেছিলেন দ্য বাসভিল। তার মধ্যে একটি ছবিতে মেলানিয়ার শরীরে একটি সুতোও নেই।

পা ঢাকা রয়েছে একজোড়া স্টিলেটোতে। ক্যামেরার দিকে সোজা তাকিয়ে ঠোঁটে আদুরে ভঙ্গি ফুটিয়ে তুলেছেন। আরেকটি ছবিতে নগ্ন মেলানিয়া ক্যামেরার দিকে পিছন ফিরে দাঁড়িয়ে, দুই হাত দেওয়ালে ভর দেওয়া। স্ত্রীর প্রাক্তন পেশা নিয়ে অবশ্য কোনও ছুঁত্‍মার্গ নেই ডোনাল্ড ট্রাম্পের। ক্যামেরার ফ্রেমে তিনি নগ্ন হয়ে ধরা দিলেও তা নিয়ে কোনও রাখঢাক নেই প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীর। ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাফ প্রতিক্রিয়া, ‘মেলানিয়া অত্যন্ত সফল মডেল ছিলেন।

বিশ্বের বিখ্যাত বেশ কয়েকটি পত্রিকার মলাটে ওর ছবি ছাপা হয়েছে। এই ফটোশ্যুটটি আমার সঙ্গে পরিচয় হওয়ার আগে ইউরোপের এক পত্রিকার জন্য তিনি করেছিলেন। ইউরোপে এমন ছবি হামেশাই দেখা যায় এবং অত্যন্ত ফ্যাশনেবল হিসেবে গণ্য হয়।’ সুত্র- নিউইয়র্ক পোস্ট

 

মতামত...