,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ঠাকুরগাওয়ে মাদক বহনে ব্যবহৃত হচ্ছে শিশুরাও

ইমন রায়, ঠাকুরগাঁও,বিডিনিউজ রিভিউজঃ দেশের উত্তর সীমান্তঘেষা জেলা ঠাকুরগাঁও এখন মাদকের ভাণ্ডারে পরিণত হয়েছে। অলি-গলি, গ্রাম-গঞ্জ, হাট-বাজার গুলোতে হাত বাড়ালেই পাওয়া যাচ্ছে ফেন্সিডিল, গাজা, মদ, ইয়াবার মত ভয়াবহ সব মাদক দ্রব্য। মাদক সহজলভ্য হওয়ায় দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে মাদক সেবনকারী।
মাদক সেবনকারীদের হাতে মাদক দ্রব্য পৌছে দেবার কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে শিশুরাও।
বিজিবি, পুলিশ, র্যাব মাদক উদ্ধারে নিয়মিত অভিযান চালালেও কোন লাভ হচ্ছেনা। ঠাকুরগাঁওয়ের বিভিন্ন সীমান্তপথ দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার পিচ ফেন্সিডিল ও গাজার চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। এসব সীমান্তপথের মধ্যে প্রধান হচ্ছে ধর্মগড়, জগদল, চেকপোষ্ট, হরিপুর, গোগোর, ফকিরগঞ্জ, স্কুলহাট ও বাদামবাড়ি। এ সকল মাদকদ্রব্য ঠাকুরগাঁওয়ের গণ্ডি পেরিয়ে ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চলে যাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
এক বিশেষ অনুসন্ধানে জানা যায়, ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় ইউনিয়নের সীমান্ত দিয়েই দৈনিক গড়ে প্রায় কয়েক হাজার ফেন্সিডিল প্রবেশ করে। যার বড় একটি চালান যাচ্ছে ঢাকা, গাজীপুর ও নারায়নগঞ্জে।
বিভিন্ন ইউনিয়নে ৬ শতাধিক মানুষ মাদক ব্যবসার জড়িত মধ্যে অর্ধ-শতাধিকই শিশু। খুচরা ব্যবসায়ীরা মাদক দ্রব্য বহন করতে টাকার লোভ দেখিয়ে এই সকল শিশুদের ব্যবহার করছে। আর দরিদ্র শিশুরা অল্প কিছু টাকার লোভে মাদক বহন করছে।
ধর্মগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম মুকুল জানান, প্রতিনিয়ত আমার কাছে মাদক জনিত অভিযোগ আসছে। দরিদ্র ও সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় ধর্মগড়ে মাদকের প্রকোপটা একটু বেশি।  বিজিবি ও পুলিশের সহযোগিতায় অনেক মাদক পাচার কারিকে আটক ও মাদক উদ্ধার করা হয়েছে ।

বিজিবি জানায়, সিমান্তে আমরা সর্বদা মাদক ব্যবসায়ীদের আটক ও মাদক চোরাচালানের বিরুদ্ধে কঠোরতা প্রদর্শন করে থাকি।

মতামত...