,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ডিজিটাল পকেটমার পিটারের জবানীতে ৫০ জালিয়াতের নাম

atm nabidনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা, ডিজিটাল পকেটমার পিটারের জবানীতে ৫০ জালিয়াতের নাম বেরিয়ে এসেছে বলে জানা গেছে। গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) জিজ্ঞাসাবাদে বেসরকারি ৩ ব্যাংকের এটিএম কার্ড জালিয়াতিতে জড়িত বাংলাদেশের ৫০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নাম বলেছেন আটক বিদেশি নাগরিক পিটার।

মঙ্গলবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপির) মিডিয়া সেন্টারে ডিজিটাল পকেটমার পিটারের জবানীতে ৫০ জালিয়াতের নাম বেরিয়ে এসেছে দাবি করে ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, পিটারসহ ৩ ব্যাংক কর্মকর্তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে করে পাওয়া তথ্যগুলি যাচায় বাছাই করে ওই সব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানেরও আইনের আওতায় আনা হবে।

তিনি আরো বলেন, ইতোপূর্বেও পিটার বাংলাদেশে এসেছিল। সেই সময় থেকেই তার সাথে দেশের কিছু ব্যাংক মালিক, মানিএক্সচেঞ্জার ও হোটেল ব্যবসায়ীর সাথে সক্ষ্যতা তৈরি হয়।

সিলেটের বাসিন্দা যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফরিদ নাবিরের সঙ্গে ইউক্রেনের নাগরিক পিটার প্রথমে বাংলাদেশে আসেন।

গোয়েন্দারা ফরিদ নাবিরের সন্ধানে সিলেটে নানা গুঞ্জন শুনে তার সম্পর্কে  জানার চেষ্টা  করে ।

জানা গেছে, সিলেটি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক ফরিদ নাবিরের জীবনযাত্রার পুরোটাই রহস্যঘেরা।

এটিএম বুথ জালিয়াতির চক্রের প্রধান হোতা থমাস পিটারের অন্যতম সহযোগী  এ লন্ডন প্রবাসী বাংলাদেশী ব্যবসায়ী ফরিদ নাবিরের বাসা সিলেট নগরীর পূর্ব পীরমহল্লায়। তার গ্রামের বাড়ি সিলেটের ওসমানীনগর থানার দয়ামীর ইউনিয়নে।

জিজ্ঞাসাবাদে এটিএম বুথের চেয়ে পস মেশিনের মাধ্যমে বিভিন্ন সুপার সপ থেকে তারা বেশি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলেও জানান ডিএমপির এ কমিশনার।

 

বি এন আর/০০১৬০০৩০০১/০০০৩০৯ /এস

মতামত...