,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ঢাকায় হাইরাইজ ভবনে গভীর রাতে অগ্নিকান্ড

aনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ বৃহস্পতিবার দিনগত রাত দুইটায়  বনানীর ২৩ নম্বর রোডের ৯ নম্বর বাড়িতে দাউ দাউ আগুন জ্বলছে। ছাদে ২৫ জন বাসিন্দা আটকা আর ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছেন।

হঠাৎ চোখে পড়লো সুবজ টি-শার্ট, কালো শর্টস পরা একজন এদিক-ওদিক ছুটছেন, ফায়ার কর্মীদের নির্দেশনা দিচ্ছেন। অনেকের ভীড়ের মাঝে লক্ষ্য করা গেলো তিনি আর কেউ নন- ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক।

রাত পৌনে দুইটার দিকে আগুন লাগার পরপরই ঘটনাস্থলে আসেন মেয়র আনিসুল হক। এসেই তিনি আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সঙ্গে কাজ শুরু করেন।

পোশাক বা চলনে মেয়রের ভাব-লেশ হীন এক জন মানুষ মাত্র । সাধারণ একজন কর্মীর মতো জল-কাদা মাড়িয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের পানি ছিটানোয় সহযোগিতা করছেন, অভিজ্ঞ ফায়ার সার্ভিস কর্মীর মতো নির্দেশনাও দিচ্ছেন।

a1কখনো আবার মাইক মুখে লাগিয়ে নিজেই সেখানে জড়ো হওয়া লোকদের সরিয়ে দিচ্ছেন।

আটকা প‍ড়া বাসিন্দাদের উদ্ধারের জন্য পাশের দুইটি বিল্ডিং এর ‍ছাদে ওঠার পর পিছনের ভবনের ছাদেও উঠেন মেয়র আনিসুল। সেখান থেকে আটকা পড়াদের সাহস দিতে থাকেন।

আগুন মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে আসলে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সঙ্গে নিজেও ভবনের ভেতরে ঢুকে পড়েন আর আটকে পড়াদের উদ্ধারে সহযোগিতা করেন।

পাশের বাড়ির একজন বাসিন্দা ঘটনাস্থলেই মেয়রের খুব প্রশংসা করছিলেন। বলছিলেন মেয়র নিজেই পানি ছেটাচ্ছেন এমন দৃশ্য আমাদের মুগ্ধ করেছে।

 

aকথা হয় আনিসুল হকের সঙ্গেও। তিনি জানান, আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনের কাছাকাছিই তার বাসা । আগুন লাগার কিছুক্ষণের মধ্যে তিনি সেখানে চলে যান।

ফায়‍ার সার্ভিস কর্মীদের প্রশংসা করে আনিসুল হক বলেন, ঘটনার পরপরই ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে চলে আসে।

ঘটনায় ১৪জন  আহত হয়। যার মধ্যে ৩ জন অগ্নিদগ্ধ হয়েছে বলে জানান ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশন) মেজর একেএম শাকিল নেওয়াজ।

প্রাথমিকভাবে গ্যাস লিকেজ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে জানান তিনি।

বাড়ির মালিক সমিতির সভাপতি শামসুল আলম জানান, বুধবার থেকে তারা বাড়ি ও বাসার আশপাশে গ্যাসের গন্ধ পাচ্ছিলেন। বিষয়টি তিনি তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষকে জানালে তারা বিষয়টি দেখছি বলেই শেষ করে। কিন্তু সমস্যা সমাধান হয়নি।

এই গ্যাস থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে দাবি করেন তিনি।

গ্যাস কর্তৃপক্ষের অবহেলা ও গ্যাস থেকেই আগুনের সূত্রপাতের বিষয় তদন্ত সাপেক্ষ উল্লেখ করে আনিসুল হক বলেন, এমনটা হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজধানীর বনানীর আবাসিক ভবনে আগুন লাগার ঘটনা গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে হয়েছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন ও ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার (১৮ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে তিতাস ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিতাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ কথা জানান।

কর্মকর্তারা বলেন, গ্যাস লাইনের কোনো লিকেজ (ছিদ্র) ছিলো কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। বিভিন্ন সঙ্কটের পরও আমরা গ্রাহকদের সর্বোচ্চ সেবা দিতে চেষ্টা করে যাচ্ছি।

এর আগে বৃহস্পতিবার দিনগত রাত পৌনে দুইটার দিকে বনানীর ২৩ নম্বর রোডের ৯ নস্বর বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।
খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিট ঘটনসাস্তলৈ গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এখনও ভবনে বাসিন্দাদের প্রবেশ করতে দেওয়‍া হচ্ছে না।

ভবনের বাসিন্দারা অভিযোগ করেন, গ্যাস পাইপের লিকেজের কারণে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় তিতাস কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করবেন বলে জানিয়েছেন  তার‍া।

বি এন আর/০০১৬০০৩০০১৮/০০০২৭৯/এস

মতামত...