,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে বুলেট ট্রেন চালু করা হবে: রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক

নিজস্ব প্রতিবেদক,৭ জানুয়ারী, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: চট্টগ্রাম-নাজিরহাট পথে ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপি। সেই সাথে এই রেললাইনটিকে ডাবল করে রামগড় পর্যন্ত সম্প্রসারণ করা হবে। আর ঢাকা-চট্টগ্রাম আলাদা লাইনে বুলেট ট্রেন চালু করা হবে বলেও জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী। তিনি গতকাল শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রামের ফটিকছড়ির মাইজভাণ্ডার আহমদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দু’দিন ব্যাপী শতবর্ষ পূর্তি উৎসব উপলক্ষে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত প্রথম দিনের অনুষ্ঠানে এবং হাটহাজারী উপজেলার ধলই ইউনিয়ন পরিষদে দুপুরে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
মাইজভাণ্ডার আহমদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে মুজিবুল হক এমপি বলেন, ইতোমধ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম আলাদা রেল লাইনে বুলেট ট্রেন চালু করতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন। বুলেট ট্রেনের মাধ্যমে ২ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা যাওয়া যাবে। সেই সাথে লাকসাম হতে আখাউড়া ৭২ কি.মি লাইনের কাজ শেষ হলে ঢাকা-চট্টগ্রাম ডাবল লাইনের কাজ শুরু করা হবে বলে জানান রেলমন্ত্রী।
মুজিবুল হক বলেন, আগামী দুই বছরের মধ্যে চট্টগ্রাম-দোহাজারী- কক্সবাজার লাইনে রেল চলবে। তিনি বলেন, যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের একটি বিভাগ ছিল রেলপথ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রেলপথের গুরুত্বের কথা বিবেচনা করে, আমূল পরিবর্তনের জন্য ২০১১ সালের ৪ ডিসেম্বর রেলপথ মন্ত্রণালয় গঠন করেন। সে থেকে নতুন ইঞ্জিন ও বগি আমদানি, পুরাতন লাইনের সংস্কার, সিগন্যাল ব্যবস্থার আধুনিকীকরণ করে রেলপথের আমূল পরিবর্তন সাধন করেছি। দেশের প্রত্যেকটি জেলায় রেলপথের আমূল পরিবর্তন হবে। তিনি মাইজভান্ডার উচ্চ বিদ্যালয়ে একাদশ শ্রেণী চালুসহ সার্বিক উন্নয়নে সহযোগিতা দেয়ার আশ্বাস দেন। এটিএম পেয়ারুল ইসলামের দাবির প্রেক্ষিতে ফটিকছড়ির নাজিরহাট – হেঁয়াকো ও নাজিরহাট-মাইজভাণ্ডার শরীফে রেল লাইন সম্প্রসারণের বিষয়ে মন্ত্রী ব্যবস্থা নেয়ারও আশ্বাস দেন। অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ সালাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম, পিরোজপুর জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ জাফর আলম, বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ডা. সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভাণ্ডারী, জেলা পরিষদ সদস্য ড. মাহমুদ হাসান ও উম্মে হাবিবা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুজিবুল হক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরী। শতবর্ষ উদযাপন পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা ও আওয়ামী লীগ নেতা এ.টি.এম পেয়ারুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উদযাপন পরিষদের মহাসচিব শহীদুল আজাদ। অধ্যাপক খোরশেদুল আনোয়ারের সঞ্চালনায় এতে আরো বক্তব্য রাখেন, মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন ও গোলাফ সবুর দুলাল। অনুষ্ঠানে ‘স্মরণে শতাব্দী’ প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন করা হয়। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে রবি চৌধুরীসহ দেশ বরেণ্য শিল্পীরা গান পরিবেশন করেন।
শুক্রবার দুপুরে হাটহাজারী উপজেলার ধলই ইউনিয়ন পরিষদে এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপি। এতে সভাপতিত্ব করেন ধলই ইউপি চেয়ারম্যান মো.আলমগীর জামান। বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা এটিএম পেয়ারুল ইসলাম, সংষ্কৃতি মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব অসীম কুমার দে, রেলের অতিরিক্ত চিফ ইঞ্জিনিয়ার আবদুল জলিল। বিপ্লব পার্থের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন হাটহাজারী মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল আলম, ডেপুটি কমান্ডার মো: হোসেন মাস্টার, শাহাদাত হোসেন চেয়ারম্যান, এস এম নোমান, আশুতোষ দে, শাহজাহান মাহবুব, এস এম ফরিদ, এইচ এম আলী আবরাহা দুলাল, দুলাল মাস্টার, ওবাইদুর রহিম, নাসিম উদ্দিন, খোকন চৌধুরী, তৌহিদুল আনোয়ার, নাছির উদ্দিন, বদিউল আলম, আজম উদ্দিন শরীফ, জেসমিন আক্তার লতা, সুলতানা রিজিয়া, জয়নাব আক্তার, জাফর উল্লাহ, ডা. শামসুল আলম, বেলাল মেম্বার, বাবলু দাশ, শাহ আলম প্রমুখ।
জনসভায় রেলমন্ত্রী স্বাধীনতাযুদ্ধে হাটহাজারী ও ফটিকছড়ি উপজেলার মানুষের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা উল্লেখ করে বলেন, চট্টগ্রাম-নাজিরহাট রেললাইন অনেক পুরনো। ব্রিটিশ আমলে এ রেললাইন ছিল উত্তর চট্টগ্রামের একমাত্র যোগাযোগের মাধ্যম। তিনি বলেন, শীঘ্রই চট্টগ্রাম-নাজিরহাট রেললাইনকে ডাবল লাইনে পরিণত করা হবে। সেই সাথে এটিকে রামগড় পর্যন্ত সম্প্রসারণের চিন্তা রয়েছে সরকারের। বর্তমানে চট্টগ্রাম-নাজিরহাট রেললাইনে দুইটি ট্রেন এবং একটি ডেমু চলাচল করছে। কিছুদিনের মধ্যে ট্রেন ও সিডিউল সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে। আরো একটি ডেমু ট্রেন বাড়ানোর চিন্তার কথাও জানান তিনি। মুজিবুল হক এমপি আরো বলেন, আগে রেল মন্ত্রণালয় লস প্রজেক্ট ছিল। কিন্তু এখন তা লাভের মুখ দেখার অপেক্ষায় আছে। রেলে নতুন নতুন ট্রেন সংযোজন হচ্ছে। সারাদেশের রেলাইন সংষ্কার করা হচ্ছে। চট্টগ্রামের মানুষ অল্প সময়ে ট্রেনে করে ঢাকায় যেতে পারছে। মন্ত্রী কাটিরহাটে জরাজীর্ণ রেলস্টেশনটি ভেঙে নতুন ভবন নির্মাণ করারও ঘোষণা দেন।

মতামত...