,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

নতুন আইনে সংক্রামক রোগ গোপন করলে সাজা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃঢাকা, দেশে সব ধরনের সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূলে নতুন করে একটি আইন করছে সরকার, যা অমান্য করলে শাস্তির সুপারিশ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ৯ মে সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার ১০৮তম বৈঠকে ‘সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল আইন ২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, ম্যালেরিয়া নিয়ে ১৯৭৭ ও ১৯৭৮ সালের দুটি আইন ছিল। এই দুটি আইন বিলুপ্ত করে নতুন করে একটি আইন হচ্ছে। আগের আইন ছিল মূলত ম্যালেরিয়া সংক্রান্ত। নতুন আইনে সংক্রামক সবগুলো ব্যাধিকে কাভার করা হয়েছে।

শফিউল আলম বলেন, আইনে সংক্রামক রোগের সংজ্ঞায় বলা হয়েছে- জীবাণুঘটিত রোগ। এর মধ্যে যতরকম জীবাণুঘটিত রোগ আছে তার নাম জুড়ে দিয়ে শেষে বলা হয়েছে ইত্যাদি, তারমানে আরও হতে পারে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, কালাজ্বর, ফাইলেরিয়া, ডেঙ্গু, ইনফ্লুয়েঞ্জা, এনথাক্স, ফ্লু, এভিয়েন ফ্লু, নিপাহ, জলাতঙ্ক, শ্বাসনালীর সংক্রমণ, এইচআইভি, ভাইরাল হেপাটাইটিস, টাইফয়েড ছাড়াও নতুনভাবে আবিষ্কৃত সংক্রামক রোগ এই আইনের আওতায় পড়বে। আইন অনুযায়ী জনস্বাস্থ্য ঝুঁকি ও জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত জরুরি অবস্থা মোকাবেলা করাসহ স্বাস্থ্য সংক্রান্ত ঝুঁকি কমাতে সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল করা হবে।

 সংক্রামক রোগ সম্পর্কে জনগণের স্বাস্থ্য সচেতনতা তৈরির লক্ষ্য নিয়েও নতুন আইন করা হচ্ছে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। নতুন এই আইনে শাস্তির প্রস্তাব করা হলেও তা চূড়ান্ত হয়নি জানিয়ে শফিউল বলেন, সংক্রামক রোগে আক্রান্ত সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে নির্দিষ্ট স্থানে শারীরিক ও ল্যাবরেটরি পরীক্ষা করাতে হবে। যদি কেউ এটা না করেন তবে আইনের ব্যত্যয় হবে এবং তিনি একবছরের জেল ও সর্বোচ্চ দুই লাখ টাকা জরিমানার সম্মুখীন হবেন। কাকে শাস্তি দেওয়া হবে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে শফিউল বলেন, রোগী নিজে বা তিনি যার অধীনে আছেন তিনি দায়ী হবেন। অমান্যকারী বা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিকারীকে শাস্তি দেওয়া হবে, তা ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান হতে পারে।

কিছু কিছু মারাত্মক রোগ আছে ইবোলা, এইচআইভি এইচডস, এগুলো স্কিন আউট না করলে তো ছড়িয়ে যাবে। এজন্য এয়ারপোর্ট থেকে এদের ধরে সেখানেই তাদের স্কিন আউট করে আইসুলেশনে রাখা হবে।

মন্ত্রিসভায় চূড়ান্ত অনুমোদন না পাওয়ায় নতুন এই আইন নিয়ে স্পষ্ট কিছু না জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, বন্দরগুলো দিয়ে এগুলো (সংক্রামক রোগ) নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

মতামত...