,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

নারী বিচারপ্রার্থীকে নির্যাতন বিএনপি-জামাতের ২ আইনজীবীবিরুদ্ধে মামলা

court2নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা , বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম::  আদালতপাড়ায় প্রকাশ্যে এক নারী বিচারপ্রার্থীকে জুতাপেটা ও শারীরিক নির্যাতনের ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের দুই আইনজীবীসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

সোমবার রাতে ভুক্তভোগী নাজমা বেগমের দেয়া অভিযোগের প্রেক্ষিতে ফতুল্লা থানায় এ মামলা করা হয়।

ফতুল্লা থানার ডিউটি অফিসার আমির হোসেন মামলা দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘নাজমা বেগম নামে এক নারীর দেয়া অভিযোগের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জ নগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন ও জামায়াত ইসলামের আইনজীবী সংগঠন নারায়ণগঞ্জ জেলা ল-ইয়ার্স কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাইনউদ্দীনসহ নাজমার স্বামী আবদুস সাত্তারের বিরুদ্ধে মামলা হয়।’

এদিকে, ওই ঘটনায় সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ আইনজীবী সমিতির কার্যকারী কমিটির সভায় সমিতির সহসভাপতি অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমানকে আহ্বায়ক করে সাত সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটি আগামী সাতদিনের মধ্যে আইনজীবী সমিতির কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করবে। যার প্রেক্ষিতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার আশ্বাস দেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আনিছুর রহমান দিপু।

প্রসঙ্গত, ৩ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জ নগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন ও জামায়াতপন্থি সংগঠন ল-ইয়ার্স কাউন্সিলের জেলার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাইনুদ্দীন আহম্মেদ নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় নাজমা বেগম নামে একনারী বিচার প্রার্থীকে প্রকাশ্যে বেদম মারধর করেন। যার ফলে নির্যাতনের শিকার ওই নারী হাসপাতালে ৬ ঘণ্টা অজ্ঞান ছিলেন। পরে ৪ ফেব্রুয়ারি ওই নারী নারায়ণগঞ্জ আইনজীবী সমিতি বরাবর বিচার দাবি করে লিখিত অভিযোগ দেয়।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ কাদিরারটেক ইউসুফগঞ্জ এলাকার ইদ্রিস আলীর মেয়ে নাজমা বেগম তার স্বামী এএম আব্দুস সাত্তারের বিরুদ্ধে মামলায় ০৩ ফেব্রুয়ারি বুধবার নারায়ণগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ধার্য তারিখে আসেন নাজমা বেগম। ওই মামলায় আসামির জামিনের বিষয়ে নাজমা বেগমের আইনজীবী আপত্তি জানায়। আদালত আসামির জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি করেন। শুনানি শেষে আদালতের বারান্দায় আসামীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন ও অ্যাডভোকেট মাইনুদ্দীন আহম্মেদ কিল ঘুষি ও মাথায় জুতা দিয়ে আঘাত করে।

ওই সময় তাদের নির্যাতনে ওই নারী মাটিতে লুটিয়ে পরে অচেতন হয়ে গেলে আদালতের লোকজন নারীকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ খানপুর ৩শ শয্যার হাসপাতালে ভর্তি করায়। হাসপাতালে ওই নারীর ৬ ঘণ্টা পর জ্ঞান ফিরে আসে।

 

 

বিএনআর/১৬২৯/০০০৩ /বি

 

মতামত...