,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

‘নৌকা ও ধানের শীষ ভোট যুদ্ধঃ ৭ বছর পর

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম):: eee আবার আগামী ৩০ ডিসেম্বর আসন্ন পৌর নির্বাচনে দুই প্রতীক ‘নৌকা ও ধানের শীষ প্রতীকের ভোট যুদ্ধ হবে  সর্বশেষ ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশের প্রধান আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল। এরপর ভোটের মাঠে নৌকা ও ধানের শীষ আর মুখোমুখি হয়নি। আগামী ৩০ ডিসেম্বর আসন্ন পৌর নির্বাচনে দুই প্রতীক আবার ভোট যুদ্ধ হবে এই দুই দলের। তাই এ ভোটে প্রার্থী থেকে শুরু করে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দিপনা দেখা দিয়েছে।

নির্বাচনী আচরণ বিধি অনুযায়ী প্রার্থীরা ভোটের মাঠে ১৪ ডিসেম্বরের আগে প্রতীক নিয়ে নামতে পারবেন না। তবে প্রতীক ছাড়াই নির্বাচনের প্রচারণায় প্রার্থীরা নেমেছেন ৯ ডিসেম্বর থেকে। প্রচারণা শুরুর পর থেকেই গ্রামগঞ্জে এখন ভোটের হাওয়া বইতে শুরু করেছে।

পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী জানান, দীর্ঘদিন পরে দুই প্রতীক ভোট যুদ্ধে মাঠে নামার কারণে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে আগ্রহ বেশি। সাধারণ ভোটারদের কাছ থেকে নির্বাচনকে ঘিরে ব্যাপক আগ্রহ দেখা দিয়েছে। দেশের মানুষ আগের মতো নেই। এখন মানুষ জানে নৌকা প্রতীক ছাড়া তাদের ভাগ্যের উন্নয়ন সম্ভব নয়। সে কারণে সাধারণ ভোটারদের ব্যাপক উৎসাহ আছে নৌকা প্রতীককে ঘিরে।

বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘সাধারণ ভোটার ধানের শীষ প্রতীক পেয়ে দারুণ খুশিতে আছে। প্রতীক নিয়ে নির্বাচনের মাঠে নামার জন্য ১৪ ডিসেম্বরের অপেক্ষায় আছেন তারা। প্রতীক ছাড়া যদিও প্রচারণা শুরু হয়ে গেছে। তারপরও প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করার জন্য বিএনপির নেতাকর্মীরা মুখিয়ে আছেন।’

স্বতন্ত্র প্রার্থীদের কথা অন্যরকম। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘এটি সংসদ নির্বাচন নয় যে, দলীয় প্রতীক প্রার্থীর পক্ষে বিজয়ী হতে ভূমিকা রাখবে। এ নির্বাচনে মানুষ ব্যক্তি ও গুণাগুণ বিবেচনা করেই তাদের জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন।

মতামত...