,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

পবিত্র হারাম শরীফে দেশ ও জাতির কল্যাণে আল্লাহর দরবারে প্রধানমন্ত্রীর মোনাজাত

PM omrah1
bnr ad 250x70 1নাছির মীর, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ সৌদি আরবের পৌঁছেই ওমরাহ পালনের জন্য পবিত্র হেরম শরিফে গমন করেন  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে প্রধানমন্ত্রী ও  তার বোন শেখ রেহানাসহ পরিবারের কয়েকজন সদস্য ও সফর সঙ্গীদের নিয়ে মক্কায় সঙ্গীদের নিয়ে হারাম শরীফে যান এবং মধ্যরাতের পর কাবাঘর তাওয়াফ শুরু করেন তারা।  সৌদি আরবের রাজকীয় অথিতি হিসাবে কড়া নিরাপত্তায় তাওয়াফ শেষে হারাম শরীফে দুই রাকাত ওয়াজিব নামাজ আদায় করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে মোনাজাতে অংশ নিয়ে দেশ ও জাতির কল্যাণে আল্লাহর দরবারে দোয়া করেন তিনি।

বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের আমন্ত্রণে ৫ দিনের সরকারি সফরে শুক্রবার বিকালে সৌদি আরবের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন প্রধানমন্ত্রী ও তার সফর সঙ্গীরা।

hasina omraসৌদি বাদশাহ সালমান দায়িত্ব নেয়ার পর মধ্যপ্রাচ্যের এ তেলসমৃদ্ধ দেশে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর এটাই প্রথম সফর।

সৌদি আরবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী জেদ্দার কিং আবদুল আজিজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছলে দেশটির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফ বিন আবদুল আজিজ তাকে অভ্যর্থনা জানান। এরপর সেনাবাহিনীর একটি চৌকস দল বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অফ অনার দেয়। এ সময় তাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা দেয়া হয়।   পরে ক্রাউন প্রিন্স নায়েফ প্রধানমন্ত্রীকে বিমানবন্দর থেকে কিং ফয়সাল রয়্যাল প্যালেসে নৈশভোজে নিয়ে যান। সেখান থেকে জেদ্দা রয়্যাল কনফারেন্স প্যালেসে যান শেখ হাসিনা। সফরকালীন সময়ে সেখানেই অবস্থান করবেন তিনি।

pm omrahশনিবার বিকালে প্রধানমন্ত্রী জেদ্দায় এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে রিয়াদে বাংলাদেশের চ্যান্সেরি কমপ্লেক্স এবং বাংলাদেশ ভবন নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

রোববার জেদ্দা নগরীর আল আন্দালুসে সৌদি বাদশাহর আল সালাম প্রাসাদে প্রধানমন্ত্রী বাদশাহর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হবেন।

সৌদি আরবে বাংলাদেশের শ্রমবাজার সম্প্রসারণ, দ্বিপক্ষীয় ব্যবসা-বাণিজ্য, বিভিন্ন প্রকল্পে সৌদি সহযোগিতা বৃদ্ধি এবং হজ ব্যবস্থাপনার মতো বিষয়গুলো আলোচনায় প্রাধান্য পাবে। এছাড়া রোববার সকালে জেদ্দা রয়্যাল কনফারেন্স প্যালেসে বেশ কয়েকজন সৌদি মন্ত্রী এবং সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। সোমবার সকালে প্রধানমন্ত্রী বিমানে মদিনার উদ্দেশে জেদ্দা ত্যাগ করবেন। সেখানে মদিনা হিলটন হোটেলে অবস্থান করবেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী মসজিদে নববীতে আসর এবং মাগরিবের নামাজ আদায় করবেন ও হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর রওজা মোবারক জিয়ারত করবেন।

প্রধানমন্ত্রী প্রিন্স মোহাম্মাদ বিন আবদুল আজিজ বিমানবন্দর থেকে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় (সৌদির স্থানীয় সময়) দেশের উদ্দেশে মদিনা ত্যাগ করবেন। সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে (ঢাকার সময়) প্রধানমন্ত্রী এবং তার সফর সঙ্গীদের বহনকারী বিমানটি হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের কথা রয়েছে।

 

মতামত...