,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

পরিকল্পনা বাস্তবায়নে গণমাধ্যমের সহযোগিতা চাইলেন মেয়র আনিসুল হক

1001নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা,২৩, জানুয়ারি (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম):: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক হুঁশিয়ার করে বলেছেন, রাজধানীর উন্নয়নে সহযোগিতা না পেলে ‘খবর’ আছে। নিজের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া নিয়ে মতামত নিতে শনিবার গণমাধ্যমের সম্পাদকদের সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

সোনারগাঁও হোটেলে এই মতবিনিময় সভায় সম্পাদকরা মেয়রকে শুধু স্বপ্ন না দেখিয়ে তা বাস্তবায়নের অনুরোধ জানান।

দায়িত্ব নেওয়ার নয় মাসে ঢাকা শহরকে যানজটমুক্ত এবং ফুটপাতগুলো দখলমুক্ত করতে নানা ধরনের কর্মসূচি নেওয়ার কথা তুলে ধরেন আনিসুল হক।

উন্নয়ন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমি এতে সবার সহায়তা চাই। যে কো-অপারেট করবে না, তার খবর আছে।’

সভার শুরুতে মেয়র তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ড, বিলবোর্ড উচ্ছেদের বিষয়গুলো তুলে ধরে নতুন কয়েকটি পরিকল্পনাও জানান।

তিনি বলেন, ‘এপ্রিলের মধ্যে ঢাকা উত্তরের ফুটপাত দখলমুক্ত করা হবে। নিরাপত্তার জন্য জুনের মধ্যে এক হাজার সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হবে। দেওয়াল লিখন বন্ধ করা হবে। কোনো অবৈধ বিল বোর্ড স্থাপন করতে দেওয়া হবে না।’

দুই মাস পর রাস্তায় কোনো আবর্জনা থাকবে না বলে ঘোষণা দেন মেয়র। পরিবহন সঙ্কট নিরসনে তিন হাজার নতুন বাস রাস্তায় নামানোর পাশাপাশি পুরনোগুলো তুলে নেওয়ার কথাও বলেন তিনি।

বহু দিনের পুরনো তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ড উচ্ছেদ করে সড়কটি ব্যবহার-উপযোগী করায় মেয়রকে ধন্যবাদ জানান সম্পাদকরা। তবে আবার যাতে সড়কটি বেদখল না হয়, সেদিকে নজর রাখার পরামর্শ দেন তারা।

ঢাকা শহরকে সুন্দর করে গড়ে তুলতে জনসচেতনতামূলক খবর পরিবেশনের জন্য জাতীয় দৈনিকগুলোকে প্রতিদিন ‘দুই ইঞ্চি’ জায়গা বরাদ্দ দিতে সম্পাদকদের অনুরোধ করেন মেয়র আনিসুল হক।

প্রতিক্রিয়ায় সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার বলেন, ‘আপনার তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ড উচ্ছেদের খবর আমরা সবাই ফলাও করে প্রচার করেছি। দুই-এক ইঞ্চি নয়; ভালো কাজ করলে ভালো কভারেজ পাবেন। আবার খারাপ কিছু করলে সমালোচনা করতেও কিন্তু ছাড়ব না।’

জনকণ্ঠ সম্পাদক আতিকউল্লাহ খান মাসুদ বলেন, ‘শুধু একবার ফুটপাত দখলমুক্ত করে বসে থাকলে চলবে না। বারবার একই জায়গায় অভিযান চালাতে হবে। যাতে তারা আবার এসে না বসে।’

ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বে (পিপিপি) উদ্যোগ নিয়ে ঢাকা শহরের উন্নয়নের পরামর্শ দেন।

মানবজমিন সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ডে রাতের বেলায় ট্রাক জমা হতে দেখা যায়। এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। আবার যাতে এখানে ট্রাক স্ট্যান্ড গড়ে না উঠে।’

ইত্তেফাকের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক তাসমীমা হোসেন মানুষের যাতে কষ্ট না হয় সেজন্য ধর্মীয় ওয়াজ-মাহফিল ঢাকা শহরের মধ্যে না করে তুরাগ নদীর তীরে করার পরামর্শ দেন।

এ সময় তিনি ফার্মগেইট পার্কে কুতুববাগ দরবার শরিফের মাহফিলের কারণে নগরবাসীর দুর্ভোগের কথা তুলে ধরেন।

কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মেয়রের কয়েক মাসের কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, ‘তবে শুধু স্বপ্ন দেখাবেন না; স্বপ্নটাকে সময়মতো বাস্তবায়ন করুন।’

সভায় প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম, আমাদের অর্থনীতির সম্পাদক নাইমুল ইসলাম খান, ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত, বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম, বণিক বার্তার সম্পাদক দেওয়ান হানিফ মাহমুদ, ঢাকা ট্রিবিউনের সম্পাদক জাফর সোবহান বক্তব্য রাখেন।

 

মতামত...