,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

পরিচ্ছন্ন নগরী গড়ে তুলতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান মেয়রের

azm nasirনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ  চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৫ম নির্বাচিত পরিষদের ৮ম সাধারণ সভা ১৫ মার্চ  মঙ্গলবার, দুপুরে কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় নির্বাচিত পরিষদের সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, অফিসিয়াল কাউন্সিলর, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, সচিব, প্রধান প্রকৌশলী, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা সহ সিটি কর্পোরেশনের বিভাগীয় প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন। চসিক সচিব রশিদ আহমদ এর উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত ৮ম সাধারণ সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত ও মোনাজাত করা হয়। মোনাজাতে বিগত সাধারণ সভার পর থেকে ৮ম সাধারণ সভা পর্যন্ত সময়ে নগরীতে মৃত্যুবরণকারী নাগরিকদের আত্মার মাগফেরাত এবং চট্টগ্রাম সহ দেশ ও জাতির উন্নতি এবং সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। সভায় ২৪ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত ৭ম সাধারণ সভার কার্যবিবরণী অনুমোদন, স্থায়ী কমিটি সমূহের কার্যবিবরণী আলোচনান্তে অনুমোদন করা হয়। সভায় ১৭ মার্চ বৃহস্পতিবার, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৯৭তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় ও উৎসব মুখর পরিবেশে উদযাপন এবং ২৬ মার্চ ৪৬ তম মহান স্বাধীনতা দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনে গৃহিত কর্মসূচি সমূহ অনুমোদিত হয়। সভায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনাকে আরো আধুনিক, পরিবেশবান্ধব ও স্বাস্থ্য সম্মত করার লক্ষে ডোর টু ডোর বর্জ্য সংগ্রহ ও অপসারনের প্রস্তাব গৃহিত হয়। চলমান রাতে বর্জ্য অপসারন কার্যক্রমের সাথে ডোর টু ডোর বর্জ্য সংগ্রহ কার্যক্রম যুক্ত হবে। প্রাথমিক পর্যায়ে নগরীর ৭, ৮, ২২, ২৩, ৩১ ও ৩৬ নং ওয়ার্ডকে পাইলট প্রকল্পের আওতায় আনা হবে এবং আগামী ৬ মাসের মধ্যে ৪১টি ওয়ার্ডকে এ কর্মসূচিতে অন্তর্ভূক্ত করা হবে। সভায় খাল-নালা হতে মাটি ও আবর্জনা উত্তোলন কার্যক্রমকে বেগবান করে বর্ষায় জলাবদ্ধতা সহনশীল পর্যায়ে উন্নিত করার কর্মকৌশল বাস্তবায়নের প্রস্তাব গৃহিত হয়। এতে বলা হয়, নগরীর সবগুলো খাল ও নালার ধারন ক্ষমতা বৃদ্ধি করে জলাবদ্ধতা কমিয়ে সহনশীল পর্যায়ে আনা হবে। সভায় নগরবাসীর ঘরে ঘরে ভীন পৌছে দেয়া এবং বর্জ্য সংগ্রহে ভ্যান গাড়ী ব্যবহারের বিষয়ে কর্পোরেট হাউসগুলোর সহযোগিতা গ্রহনের প্রস্তাবও গৃহিত হয়। এ ছাড়াও নগরীর পৌরকর পূর্নমূল্যায়নের বিষয়টি আলোচনা হয়, মেয়াদ উর্ত্তীণ ওয়ার্ডগুলোর পৌরকর মূল্যায়নে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। নগরবাসীর উপর কোন ধরনের নতুন কর বৃদ্ধি না করে হোল্ডারদের স্ব নির্ধারনী নিয়মে পৌরকর পুর্নমুল্যায়ন করা হবে বলে সভাকে অবহিত করা হয়। সভায় চট্টগ্রাম মিউনিসিপ্যাল মডেল হাই স্কুল এন্ড কলেজ এবং পাথরঘাটা মহিলা মহাবিদ্যালয়কে সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভূক্ত করা, কর্পোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের মধ্যে নন এমপিও ভূক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষকদের এমপিও ভূক্তকরণে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহন, রোগী পরিবহনে নতুন ২টি এ্যাম্বুলেন্স সংগ্রহ করা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আসন সংখ্যা বৃদ্ধি করা, আবর্জনা বহনকারী কন্টেইনার রাখার স্থানগুলিতে প্ল্যাটফরম তৈরী করা, রাত্রিকালিন পরিচ্ছন্ন কাজে ব্যবহারে রিচার্জেবল টর্চ লাইট প্রদান করা, পরিচ্ছন্ন বিভাগের সুপারভাইজারদের জন্য মটর সাইকেল প্রদান করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সভার সভাপতি সিটি মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, নগরীর পরিবেশ সুরক্ষার স্বার্থে ডোর টু ডোর আবর্জনা সংগ্রহের কাজে ব্যবহারের জন্য ভীম ও ভ্যানগাড়ী এবং জনবল প্রয়োজন হবে। নগরীর কর্পোরেট হাউস ও সংস্থা গুলো তাদের প্রতিষ্ঠানের নামে ভ্যানগাড়ী ও ভীম সরবরাহ করলে সিটি কর্পোরেশন স্বাগত জানাবে। তিনি বলেন, নগরীকে আলোকিত নগরীতে উন্নিত করার প্রয়াস চলছে এ ক্ষেত্রে বিদেশী অনেক সংস্থা সহযোগিতার প্রস্তাব দিয়েছে। বর্জ্য থেকে গ্যাস, বিদ্যুৎ ও সার তৈরী করা সহ এলইডি লাইটিং এর প্রস্তাবগুলো বিবেচনায় রাখা হয়েছে। মেয়র সভাকে অবহিত করেন যে, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ এবং সংশ্লিষ্টদের অনুমোদন ক্রমে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের বকেয়া পরিশোধ এবং উন্নয়ন কার্যক্রমের জন্য ৫ শত কোটি টাকা থোক বরাদ্দ পাওয়া যাবে। মহেষখালের উপর বাঁধ নির্মাণের কারণে পরিবেশ দুষনের অভিযোগ তদন্ত করে পরিবেশ দুষনরোধ করতে বন্দর কর্তৃপক্ষকে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহনের পরামর্শ দেন মেয়র। তিনি বলেন, বন্দর কর্তৃপক্ষের অর্থায়নে চলতি অর্থ বছরের মধ্যে মহেষখালের মুখে সøুইচ গেইট নির্মিত হবে। সøুইচ গেইট নির্মিত হলে অস্থায়ী বাঁধ অপসারন করা হবে। জনাব আ জ ম নাছির উদ্দীন ৩৭নং ওয়ার্ডের রেলওয়ের খালটির মাটি অপসারন করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রকৌশল বিভাগকে নির্দেশ দেন। সিটি মেয়র সভাকে অবহিত করেন যে, সরকার হিজড়া জনগোষ্ঠিকে তৃতীয় লিঙ্গের মর্যাদা দিয়েছে। তাদের বিভিন্ন দাবীর বিষয়ে বলেন, সিটি কর্পোরেশনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হিজড়াদের মধ্যে কিশোর বয়সে লেখাপড়া করতে চাইলে ভর্তির সুযোগ সহ বিনামূল্যে লেখাপড়ার অধিকার সহ সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য কেন্দ্র গুলোতে হিজড়াদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেয়া হবে। তিনি হিজড়াদের সচেতনতা এবং দায়িত্ববোধ সৃষ্টির জন্য আন্তরিক হওয়ার পরামর্শ দেন। সভার শুরুতে প্রধান প্রকৌশলী নগরীতে চলমান খাল খনন, নালা-নর্দমার মাটি ও আবর্জনা উত্তোলন, সড়ক উন্নয়ন, প্রতিরোধ দেয়াল নির্মাণ সহ উন্নয়ন কার্যক্রমের বিশদ ব্যাখ্যা তুলে ধরেন। এ ছাড়াও সহকারী প্রকৌশলী মো.মঞ্জুরুল হক তালুকদার জাপানে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার উপর তার অভিজ্ঞতার একটি সচিত্র প্রতিবেদন তুলে ধরেন।

 

বি এন আর/০০১৬০০৩০০১৫/০০০২৪৭/পি

মতামত...