,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

পুলিশ ছিনতাইকারী, গণধোলাই পরে আটক

Arrest1সিলেট,০৭ ডিসেম্বর (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম)::সিলেট এক নারীর টাকা ছিনতাই করে পালিয়ে যাওয়ার সময় এক পুলিশ সদস্যকে আটক করেছে স্থানীয় জনতা। এ সময় ছিনতাইকারী ওই পুলিশকে গণধোলাই দেয়।

সোমবার বেলা দেড়টার দিকে সিলেট নগরীর বারুতখানা এলাকায় ছিনতাইয়ের এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃত ছিনতাইকারী পুলিশ সদস্যের নাম শরীফ রানা। তিনি সিলেট জেলা পুলিশের মোটরযান সেকশনের কনস্টেবল। তার আইডি নম্বর ৪৯৫। আর ছিনতাইয়ের শিকার তামান্না আক্তার কলি ধোপাদিঘীর পাড় আল ফালাহ্ টাওয়ারের বাসিন্দা আনসার আলীর মেয়ে।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহেল আহমদ জানান, বেলা দেড়টার দিকে বারুতখানা পয়েন্টে এক নারীর টাকা ছিনতাই করে পালিয়ে যাওয়ার সময় এক যুবককে আটক করে জনতা। পরে খবর দিলে পুলিশ ওই ছিনতাইকারীকে থানায় নিয়ে আসে।

থানায় আনার পর ওই ছিনতাইকারী নিজেকে পুলিশ সদস্য বলে দাবি করে। সে জেলা পুলিশের মোটরযান সেকশনের কনস্টেবল।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে সোহেল আহমদ জানান, দুপুর পৌনে ১২টার সময় তামান্না আক্তার কলি ২ লাখ টাকা নিয়ে তার ভাইয়ের সাথে বারুতখানাস্থ ডাচ বাংলা ব্যাংকে আসেন। ব্যাংক থেকে আরো ৬ লাখ ৯০ হাজার টাকা উত্তোলন করে জিন্দাবাজারস্থ ব্র্যাক ব্যাংকে জমা করার উদ্দেশ্য রওয়ানা দেন।

কলি বারুতখানাস্থ পয়েন্টে এসে পৌঁছলে একটি মোটরসাইকেল এসে তার গতিরোধ করে। তার সাথে থাকা ব্যাগ থেকে দু’লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয় রানা। এসময় কলির আর্তচিৎকারে রিকশা থেকে তার ভাই ও স্থানীরা এগিয়ে এলে ছিনতাইকারী বারুতখানার দিকে দৌঁড় দেন। পালানোর সময় আশেপাশের সিকিউরিটি গার্ড ও জনতা তাকে ধরে ফেলে। পরে তাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে।

ওসি সোহেল আরো জানান, কনস্টেবল শরীফ রানাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। জিজ্ঞাসাবাদে রানার সঙ্গীদের পরিচয় ও টাকা উদ্ধারে তৎপর রয়েছে পুলিশ।

মতামত...