,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় বিএনপির প্রশংসায় প্রধানমন্ত্রী

322নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা,৩১, ডিসেম্বর (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম):: পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় বিএনপির প্রশংসা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, তাঁরা নির্বাচনের পথে এসেছে, তাঁরা নির্বাচনমুখী হয়েছে। এজন্য আমি তাঁদের অভিনন্দন জানাই।

আজ বৃহস্পতিবার গণভবনে চলতি বছরের প্রাইমারি স্কুল সার্টিফিকেট (পিএসসি), জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) এবং সমমানের পরীক্ষার ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণ করার সময় প্রধানমন্ত্রী এসব বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, প্রাথমিক ও গণ শিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান প্রধানমন্ত্রীর কাছে ওই ফলাফল হস্তান্তর করেন। একই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী দেশব্যাপী পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কার্যক্রমও উদ্বোধন করেন।

এ সময় শেখ হাসিনা বলেন,  বিএনপি এ সময়ে সচেতন হয়েছে এবং তাঁরা বিভিন্ন ধরনের ধ্বংসাত্মক কার্যক্রমের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ বিনষ্ট করার চেষ্টা করেনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন,  বিএনপি-জামায়াতের ধ্বংসাত্মক কার্যক্রমে দেশের জনগণ চলতি বছরের প্রথম তিন মাস ভয়াবহ ও বেদনাদায়ক জীবন কাটিয়েছে। বিএনপি-জামায়াত এ সময় মানুষ পুড়িয়ে হত্যা ও বাসে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটিয়েছে। এ সময় শিশুরা স্কুলে যেতে পারেনি এবং ঘনঘন সময়সূচি (পরীক্ষার) পরিবর্তনের জন্য পরীক্ষা দিতে পারেনি বলে উল্লেখ করে তিনি এই পরিস্থিতিকে অত্যন্ত দুঃখজনক হিসেবে বর্ণনা করেন।

শেখ হাসিনা আশা করেন, ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা ঘটবে না এবং ছাত্রছাত্রীরা তাদের পড়াশোনা অব্যাহত রাখতে সক্ষম হবে। তিনি বলেন, ‘আমি আশা করি ভবিষ্যতে আন্দোলনের নামে কেউ ধ্বংসাত্মক কার্যক্রমের পথ অবলম্বন করবে না। সরকার চায় শিক্ষার্থীরা শান্তিপূর্ণভাবে তাদের পরীক্ষার আসনে বসতে পারবে এবং পরীক্ষায় পাস করবে।

গতকাল বুধবার সারাদেশে ২৩৪টি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এবারই প্রথম দলীয় প্রতীক নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলো পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। ২২৭টি পৌরসভায় আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা ১৭৭টি এবং বিএনপি প্রার্থীরা ২২টি পৌরসভায় জয়ী হয়েছে। এ ছাড়া দলের মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের ১৮ জন বিদ্রোহী এবং বিএনপির এক বিদ্রোহী প্রার্থী।

নির্বাচনে ভোটগ্রহণের আগেই সাতটিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থীরা জয়ী হন। সেই হিসাবে আওয়ামী লীগ মনোনীত ও বিদ্রোহী প্রার্থীরা ১৯৫টি পৌরসভায় মেয়র পদে জয়ী হয়েছেন।

ভোটকেন্দ্র দখল, ব্যালট বাক্স ছিনতাইসহ নানা অভিযোগে সাতটি পৌরসভার কিছু কেন্দ্রে নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়।-বাসস

মতামত...