,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

প্রধানমন্ত্রী আজ উদ্বোধন করবেন, বৃহস্পতিবার বিমানের হজ ফ্লাইট শুরু

kaba makka picনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ চলতি মৌসুমে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম হজ ফ্লাইট বিজি-১০১১ আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা ৫ মিনিটে ৪১৯ জন হজ যাত্রী নিয়ে জেদ্দার উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়ে যাবে। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান এ সময় বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে উদ্বোধনী ফ্লাইটের হজ যাত্রীদের বিদায় জানাবেন। একই দিনে হজ ফ্লাইট বিজি-৩০১১ দুপুর ২টা ৩৫ মিনিটে ৪১৯ জন, বিজি-৫০১১ বিকাল ৫টায় ৪১৯ জন এবং শেড্যুল ফ্লাইট বিজি-০০৩৫ রাত ১১টা ৫৯ মিনিটে জেদ্দার উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়বে। নির্ধারিত সময়ে, নির্বিঘ্নে হজ ফ্লাইট পরিচালনার সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যেই সম্পন্ন করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। চট্টগ্রাম এবং সিলেট থেকেও এ বছর যথারীতি প্রয়োজনীয় সংখ্যক হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আশকোনাস্থ হজ ক্যাম্পে হজ কার্যক্রমের উদ্বোধন ঘোষণা করবেন। এদিকে হজ যাত্রীদের সুবিধার্থে এবছর মোবাইল অপারেটরগুলো বিভিন্ন প্যাকেজ ঘোষণা করেছে।

বাংলাদেশ থেকে এবছর প্রায় ১ লক্ষ ১ হাজার ৭৫৮ জন হজ যাত্রী পবিত্র হজব্রত পালনে সৌদি আরব যাবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন মোট পাঁচ হাজার দুইশ’ জন। অবশিষ্ট ৯৯ হাজার ৫৫৮ জন যাবেন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়। এবছর বাংলাদেশ বিমানে যাবেন মোট ৫১ হাজার হজ যাত্রী, এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন পাঁচ হাজার দুইশ’ জন অবশিষ্ট ৪৫ হাজর ৮শ’ জন যাবেন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়। এ বছর ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে হজ যাত্রীদের ইকনোমি ক্লাসে বিমান ভাড়া ১৪৭৫ মার্কিন ডলার এবং বিজনেস ক্লাসে বিমান ভাড়া ২৪৭৫ মার্কিন ডলার নির্ধারণ করা হয়েছে। এর সাথে যোগ হবে অন্যান্য কর। ঢাকা থেকে জেদ্দা প্রতি ফ্লাইটের উড্ডয়ন কাল হবে আনুমানিক ৭ ঘন্টা।

দুই মাসব্যাপী হজ ফ্লাইট পরিচালনায় শেড্যুল ফ্লাইটসহ মোট ২৮১টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে, যার মধ্যে ২২০ ‘ডেডিকেটেড’ এবং ৬১টি শেড্যুল ফ্লাইট। কাল ৪ আগস্ট থেকে ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ‘প্রি-হজ’-এ মোট ১৪৪টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে (ডেডিকেটেড ১১২ এবং শেড্যুল ৩২)। ‘পোস্ট-হজে’ ১৩৭টি ফ্লাইট চলবে ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত (ডেডিকেটেড ১০৮ এবং শেড্যুল ২৯)। প্রত্যেক হজ যাত্রী (বয়স্ক ও শিশু) বিনামূল্যে সর্বাধিক ২ (দুই) পিস ৪৬ (ছেচল্লিশ) কেজি মালামাল বিমানে ও বিজনেস ক্লাসের জন্য সর্বাধিক ২ (দুই) পিস ৫৬ (ছাপান্ন) কেজি এবং কেবিন ব্যাগেজে ৭ (সাত) কেজি মালামাল সঙ্গে নিতে পারবেন। কোন অবস্থাতেই প্রতি পিস ব্যাগেজ এর ওজন ২৩ (তেইশ) কেজি এবং বিজনেস ক্লাস-এ ২৮ কেজির বেশি হতে পারবে না। প্রত্যেক হজ যাত্রীর জন্য ৫ (পাঁচ) লিটার জমজমের পানি ঢাকায় নিয়ে আসা হবে এবং হাজী সাহেবানরা ঢাকা ফেরৎ আসার পর তাঁদেরকে তা প্রদান করা হবে। হাজী সাহেবানরা সাথে করে বিমানে পানিবহন করতে পারবেন না। যে কোন ধারালো বস্তু যেমন ছুরি, কাঁচি, নেইল কাটার, ধাতব নির্মিত দাঁত খিলন, কান পরিস্কারক, তাবিজ ও গ্যাস জাতীয় বস্তু যেমন এ্যারোসল এবং ১০০ (এমএল)-এর বেশী তরল পদার্থ হ্যান্ড ব্যাগেজে বহন করা যাবে না এবং কোন প্রকার খাদ্য সামগ্রী সঙ্গে নেওয়া যাবে না।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী হাজী সাহেবানদের কষ্ট লাগব করার উদ্দেশ্যে ফিরতি ফ্লাইটের (জেদ্দা থেকে বাংলাদেশ) ব্যাগেজ জেদ্দা এয়ারপোর্ট-এ চেক্‌-ইন এর সময় বিমানে গ্রহণ করা হবে না। পরিবর্তে এই ব্যাগেজ পূর্বেই মক্কা ও মদিনায় বিমান নির্ধারিত স্থানে ও নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে হবে যা বিমানের ব্যবস্থাপনায় সংশ্লিষ্ট হাজী সাহেবানদের বহনকারী ফ্লাইটেই পরিবহন করা হবে। বিমান কর্তৃক পরিচালিত ডেডিকেটেড হজ ফ্লাইট সমুহের চেক-ইন, ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস আনুষ্ঠানিকতা প্রতিবারের ন্যায় এবারও হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সংলগ্ন হজ ক্যাম্পেই সম্পন্ন করা হবে। তবে শেড্যুল ফ্লাইটের হজ যাত্রীদের যাত্রাপূর্ব আনুষ্ঠানিকতা যথানিয়মে বিমানবন্দরে সম্পন্ন করা হবে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সাউদিয়া হজ যাত্রীদের ঢাকা-জেদ্দা রুটে আনা-নেওয়া করবে।

 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ সকালে রাজধানীর উত্তরার আশকোনা হাজী ক্যাম্পে হজ যাত্রীদের সঙ্গে তিনি শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন এবং এ বছরের হজ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একটি সূত্র গতকাল এ তথ্য জানায়। এবছরের ১১ জানুয়ারি মন্ত্রিসভার বৈঠকে ২০১৬ সালের হজ প্যাকেজ অনুমোদন দেয়া হয়। যাতে হজ যাত্রীদের জনপ্রতি ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৪ হাজার ৯০৩ টাকা। গতবারের তুলনায় যা ৮ হাজার ৬৯৭ টাকা বেশি। এর মধ্যে রাষ্ট্রীয় বিমান পরিবহন সংস্থা বাংলাদেশ বিমান অর্ধেক হজ যাত্রী বহন করবে এবং বাকি হজ যাত্রীদের বহন করবে সৌদি এয়ারলাইন্সের বিমান। এ ছাড়া অন্যকোন তৃতীয় বাহন এখানে সংযুক্ত হবে না। হাজীদের জরুরি চিকিৎসা, ওষুধপত্রসহ আনুষঙ্গিক নানা সুযোগ-সুবিধা প্রদানের জন্য দেশ থেকে ২৯২ সদস্যের একটি দলও সৌদি আরবে যাবে।

মতামত...