,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন শনিবার, ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে নতুন বিরতিহীন ট্রেন সোনার বাংলা

bnr ad 250x70 1

train red-greenনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ 

ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে চলাচল শুরু করবে লাল সবুজের নতুন বিরতিহীন ট্রেন সোনার বাংলা আগামী ২৬ জুন রোববার থেকে ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন এ ট্রেনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন ২৫ জুন ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশনে।

aরেলওয়ে  জানায়,  নতুন ট্রেন হিসেবে পুর্বাঞ্চল রেলওয়েতে যুক্ত হচ্ছে নতুন বিরতিহীন ট্রেন সোনার বাংলা এক্সপ্রেস। আগামী রোববার বাণিজ্যিকভাবে যাত্রী পরিবহন শুরু করবে এ ট্রত্ট্রেরেনে ১৬ বগিতে স্নিগ্ধা (শীতাতপ চেয়ার), শোভন চেয়ার, এসি বাথ মিলিয়ে ৭৪৬টি আসন থাকবে। ট্রেনটি প্রতিদিন সকাল ৭টায় কমলাপুর স্টেশন থেকে ছেড়ে চট্টগ্রাম পৌঁছাবে বেলা ১২টা ৪০ মিনিটে। একই ট্রেন চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে ছাড়বে বিকাল ৫টায়, ঢাকা পৌঁছাবে রাত ১০টা ৪০ মিনিটে। নতুন এই ট্রেনের ভাড়া বাড়ছে না। সুবর্ণ এক্সপ্রেসের মতোই থাকছে এই ট্রেনের ভাড়া। ট্রেনটি ঢাকা- চট্টগ্রাম রেলপথে শুধুমাত্র ঢাকার বিমানবন্দর স্টেশন ছাড়া অন্য কোন স্টেশনে থামবে না। এই ট্রেনটিই হবে ঢাকা-চট্টগ্রাম পথে চলাচলকারী দ্বিতীয় বিরতিহীন ট্রেন। এর আগে প্রথম বিরতিহীন আন্তঃনগর ট্রেন সুবর্ণ এক্সপ্রেস চলাচল শুরু করে ১৯৯৮ সালের ১৪ এপ্রিল।

 চট্টগ্রামস্থ রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক আবদুল হাই জানান, ইন্দোনেশিয়া থেকে আনা নতুন ষোলটি বগি দিয়েই আন্তঃনগর ট্রেন সোনার বাংলা যাত্রী পরিবহন করবে। শনিবার একদিন সাপ্তাহিক ছুটি ছাড়া সপ্তাহের বাকি ছয়দিন ট্রেনটি চলাচল করবে।

লাল সবুজ রঙে রাঙানো সোনার বাংলা এক্সপ্রেসের ১৬টি বগির মধ্যে চারটি এসি চেয়ায়ের (স্নিগ্ধা) প্রতিটিতে ৫৫টি করে ২২০ আসন, সাতটি শোভন চেয়ারের বগিতে ৪২০ আসন, দুটি এসি বাথে ৩৩ করে ৬৬ আসন এবং দুটি খাবার গাড়ির সঙ্গে সংযুক্ত ৪০টি আসন রয়েছে। এর বাইরে একটি পাওয়ার কার থাকছে ট্রেনটিতে। খাবার সরবরাহের দায়িত্বে থাকবে পর্যটন কর্পোরেশন। পূর্বাঞ্চলের পরিবহন বিভাগের কর্মকর্তারা জানান,  বুধবার ২২ জুন থেকে নতুন এই ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে।

মতামত...