,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

প্রেমে সাড়া না দেয়ায় রিশা খুন,ঘাতক ওবায়দুলের স্বীকারোক্তি

a1স্টাফ রিপোর্টার, বিডিনিউজ রিভিউজঃ প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না পেয়ে রাজধানীর ‘উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের’ ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশাকে হত্যা করা হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন ওবায়দুল খান।

সোমবার এ হত্যা মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম আহসান হাবীবের আদালতে দেয়া জবানবন্দিতে এ স্বীকারোক্তি দেন ওবায়দুল।

জবানবন্দিতে তিনি বলেন, ‘আমি রিশাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিলাম। কিন্তু সে আমার প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে। তাই তাকে ছুরিকাঘাত করি।’

ছয় দিনের রিমান্ড শেষ হওয়ার একদিন আগে সোমবার ওবায়দুলকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর জবানবন্দি দেওয়ার পর তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

গত ২৪ আগস্ট পরীক্ষা শেষে স্কুলের সামনের ফুটওভারব্রিজ দিয়ে তার বন্ধু মুনতারিফ রহমান রাফির সঙ্গে পার হওয়ার সময় রিশাকে প্রেমের প্রস্তাব দেয় ওবায়দুল। কিন্তু তা প্রত্যাখ্যান করলে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী রিশাকে ছুরিকাঘাত করা হয়। তিন দিন পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় রিশার মা তানিয়া হোসেন বাদী হয়ে রমনা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। এতে ইস্টার্ন মল্লিকা মার্কেটের ‘বৈশাখী টেইলার্সের’ কর্মী ওবায়দুলকে আসামি করা হয়।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ৫/৬ মাস আগে রিশা ও তার মা ‘বৈশাখী টেইলার্সে’ কাপড় সেলাই করাতে যান। এ সময় তারা মা ওই দোকানের রসিদের রিসিভ কপিতে তার মোবাইল ফোন নম্বর দিয়ে আসেন। ওই টেইলার্সের কর্মচারী ওবায়দুল রিসিভ কপি থেকে ফোন নম্বর নিয়ে রিশাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে বিরক্ত করত।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে কয়েক দিনের অভিযান শেষে গত বুধবার নীলফামারীর ডোমার থেকে ওবায়দুলকে গ্রেফতার করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পরদিন আদালতের মাধ্যমে তাকে ছয় দিনের রিমান্ডে নেয় রমনা থানা পুলিশ।

মতামত...