,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ফাইনালে ভালো করতে পারলে সারা জীবন মনে থাকবে

indi-joboক্রীড়া  প্রতিবেদক, ঢাকা,  বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম::বড় কোনো বাধা ছাড়াই গ্রুপ পর্ব পার ও যুব বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াইয়েও পুঁচকে নামিবিয়াকে উড়িয়ে দিয়েছিল টুর্নামেন্টের টপ ফেভারিট ভারতীয় যুব দল। এরপর সেমিফাইনালে শক্তিশালী শ্রীলঙ্কাও পাত্তা পায়নি। পঞ্চম বারের মতো আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলছে ভারত। এর মধ্যে তারা তিনবার নিয়েছে শিরোপার স্বাদ। রোববার ফাইনালে ক্যারিবীইয়ানদের মুখোমুখি হবে ভারত। ফাইনালের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত ভারত। এই মুহুর্তে তাদের চাওয়া মাঠে নেমে পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করা। ফাইনালের আগে শনিবার শেষবারের মত নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার পর এমনটাই জানালেন ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক ইশান কিষান। এছাড়াও রোববার তারা এমন কিছু করতে চায় না, যাতে করে ভবিষ্যতে আর আফসোস করতে হয়। এই ম্যাচে ভালো খেলে সারা জীবন ভালো লাগা অনুভব করতে চান বলে জানান ইশান। বললেন, ‘প্রস্তুতি খুবই ভালো। আজ কঠোর পরিশ্রম করলাম। বোলিং ও ফিল্ডিং সেশন দুর্দান্ত ছিলো। বোলাররা লাইন-লেন্থ ঠিক রেখে বোলিং করেছে। ইয়র্কার অনুশীলন হয়েছে। স্লগ ওভারের বোলিংটাও ঝালিয়ে নেয়া হয়েছে। সব মিলিয়ে আগামীকালের জন্য আমরা প্রস্তুত। আশা করছি কাল আমরা দারুণ কিছু করবো।’ তিনি আরও বললেন, ‘ওয়েস ইন্ডিজ ভালো খেলছে। আমরাও সেটা করার চিন্তা করছি। মাঠে নেমে পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করতে হবে। ভবিষ্যতে কী করবো বা কী হবে তা নিয়ে চিন্তা করছি না। আমরা শুধুমাত্র বিশ্বকাপ ফাইনাল নিয়ে ভাবছি। আলাদা কিছু চিন্তা করছি না।’ ম্যাচের আগে খুব বেশি চিন্তা ভাবনা করতে নারাজ ইশানরা। তার য়তে চিন্তা ভাবনা এশি করলে সমস্যা কমবে না বরং আরও বাড়বে। বললেন, ‘এখানে প্রতিটি ম্যাচের আগেই টেনশন ছিলো। আর এটা তো বিশ্বকাপ ফাইনাল। সুতরাং বুঝতেই পারছেন রবি ভাই। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভালো দল। তারা দারুণ খেলে এখানে এসেছে। আমরা এই টুর্নামেন্টের কোনো দলকেই ছোট করে দেখিনি। যা হোক, আমরা দ্রুত খেয়ে দেয়ে ঘুমিয়ে পড়তে চাই (আজ)। আমরা যদি বেশি চিন্তা করি, তবে বেশি সমস্যা সৃষ্টি হওয়া ছাড়া কিছু হবে না। যেভাবে খেলে এসেছি, সেভাবেই খেলতে হবে। আপাতত চিন্তা শুধু এটাই। আমরা ভালো খেললে সবাই সেটা মনে রাখবে। ইতিবাচক চিন্তাগুলোই আমাদের ফাইনালে সহায়তা করবে।’ হার অথবা জিত; এমন সময়ে বোর্ড পরীক্ষা বা স্কুলের বন্ধের দিনে আমেজ পাচ্ছেন কি? এমন প্রশ্নের উত্তরে ইশান বললেন, ‘স্কুল ছুটি তো কিছুটা হবেই। শেষ ম্যাচে আমরা এমন কিছু করতে চাই না, যার জন্য ভবিষ্যতে আফসোস করতে হয়। আমরা আমাদের শতভাগ উজাড় করে দিবো। আমরা একটা নির্দিষ্ট পরিকল্পনা অনুসরণ করে এই পর্যন্ত এসেছি। এখন আবার সেই পরিকল্পনা অনুসরণ করতে হবে। যেভাবে খেলে এতো দূর এসেছি, সেভাবেই খেলতে হবে। এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এটা ফাইনাল পরীক্ষার মতো। ভালো করতে পারলে সারাজীবন ভালো লাগবে।

 

বি এন আর/১৬০২১২/০০০৪৮/এন

মতামত...