,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

বন্দরের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে বে-টার্মিনাল নির্মাণের বিকল্প নেইঃ মেয়র

aনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি আয়োজিত ২৪তম চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৬ এ অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানসমূহের মধ্যে এ্যাওয়ার্ড ও সনদপত্র প্রদান অনুষ্ঠান ১৫ এপ্রিল বিকেলে পোলোগ্রাউন্ডস্থ মেলা প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। চেম্বার প্রেসিডেন্ট মাহবুবুল আলম’র সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন, চেম্বার সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ নুরুন নেওয়াজ সেলিম ও সহ-সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমেদ বক্তব্য রাখেন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে চেম্বার পরিচালকবৃন্দ, ভারতের সহকারী হাইকমিশনার সোমনাথ হালদার, অনারারী কনস্যূল জেনারেল অব রাশিয়ান ফেডারেশনের প্রতিনিধি, ডিপ্লোম্যাটস, সরকারী উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ, সিসিসি কাউন্সিলরবৃন্দ, বিভিন্ন ট্রেডবডি নেতৃবৃন্দ, অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রতিনিধিসহ নগরীর বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন চিটাগাং চেম্বারকে ব্যবসায়ীদের অভিভাবক সংগঠন উল্লেখ করে বলেন-অর্থনৈতিক সম্ভাবনাময় হিসেবে বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের কার্যকর ভূমিকা রয়েছে। তিনি দেশের আমদানি-রপ্তানী কার্যক্রমের সিংহভাগ তথা ৮৪% চট্টগ্রাম বন্দরের মাধ্যমে পরিচালিত হয় মন্তব্য করে বলেন-এ বন্দরের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য বে-টার্মিনাল নির্মাণের কোন বিকল্প নেই। এ টার্মিনাল দ্রুত ও অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নির্মাণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করার জন্য তিনি চিটাগাং চেম্বারের প্রতি আহবান জানান। সিটি মেয়র চট্টগ্রামে দু’টি বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চল নির্মাণ হলে প্রায় ৩০ লক্ষ লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি ব্যবসায়ীদের উৎপাদন খরচ কমবে বলে মনে করেন। তিনি চট্টগ্রামকে একটি গ্রিন, ক্লিন, পরিকল্পিত এবং বিশ্বমানের শহর হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে সংকীর্ণতা পরিহার করে স্ব-স্ব অবস্থান থেকে নগরবাসীর সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন।

চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন-চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা দুই যুগ পূর্ণ করে যে ব্যতিক্রমধর্মী দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে তা শুধু ব্যবসায়ী নয়, চট্টগ্রামবাসীর সাফল্য। দেশী-বিদেশী বিনিয়োগ আকর্ষণে চিটাগাং চেম্বার কর্তৃক ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার নির্মাণ, বন্দর সচল রাখা, ব্যবসায়ীদের সমস্যা সমাধানে সরকারের সাথে সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করছে চিটাগাং চেম্বার। চেম্বার সভাপতি দেশ বা অর্থনীতির উন্নয়নে সরকার শুধু সহায়কের ভূমিকা পালন করে জানিয়ে বলেন-সাড়ে তিন কোটি ব্যবসায়ীরাই নিরবচ্ছিন্ন সেবাদানের মাধ্যমে প্রবৃদ্ধি অর্জন এবং উন্নয়নে মূল চালিকা শক্তি হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।

চেম্বার সিনিয়র সহ-সভাপতি ও মেলা কমিটির চেয়ারম্যান মোঃ নুরুন নেওয়াজ সেলিম সুষ্ঠুভাবে সিআইটিএফ-২০১৬ সম্পন্ন করতে সার্বিক সহযোগিতার জন্য অংশগ্রহণকারী সকল দেশী-বিদেশী প্রতিষ্ঠান, জেলা প্রশাসন, রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ, র‌্যাব, মেট্রোপলিটন পুলিশ, নগর বিশেষ শাখা, গোয়েন্দা শাখা, এনএসআই, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, পিডিবি কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান। চেম্বার সহ-সভাপতি ও মেলা কমিটির কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ জামাল আহমেদ বলেন-হাজার রকমের পণ্যের পসরা নিয়ে এ মেলা সাজানো হয়েছে। মেলায় স্থানীয় পণ্যের পাশাপাশি অনেক আন্তর্জাতিক মানের পণ্য এসেছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। দর্শকদের চাপের মুখে মেলা ১৯ এপ্রিল রাত ১১.০০ টা পর্যন্ত বর্ধিত করার কথা জানান চেম্বার সহ-সভাপতি। অনুষ্ঠান শেষে মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে প্রাণ আরএফএল গ্র“প, টি.কে. গ্র“প অব ইন্ডাষ্ট্রিজ, রংপুর ফাউন্ডারী লিঃ, আখতার ফার্নিচারস্ লিঃ, হাতিল কমপ্লেক্স লিঃ, আবুল খায়ের মিল্ক প্রোডাক্টস্ লিঃ, অপপো বাংলাদেশ কমিউনিকেশন, অলিম্পিক ইন্ডাষ্ট্রিজ লিঃ, পিএনএল হোল্ডিংস লিঃ, রংপুর মেটাল ইন্ডাষ্ট্রিজ লিঃ এবং পার্টনার কান্ট্রি থাই প্যাভিলিয়নকে এ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

মতামত...