,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

বাঁশখালীতে এইচএসসি পরীক্ষার্থীকে হলে ঢুকতে না দেয়ায় অজ্ঞাত হয়ে হাসপাতালে

aবাঁশখালী (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা,বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ বাঁশখালী গালর্স কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ফরজানা আক্তার (১৭) এর শেষ দিনের পরীক্ষাটি দেওয়া হলো না । ফরজানা আক্তার উপজেলার  উপকুলীয় গন্ডামারা ইউনিয়নের বড়ঘোনা গ্রামের মোঃ নবীর কন্যা। মঙ্গলবার ১৬ মে যথানিয়মে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য বাড়ী থেকে বের হয় ফরজানা আক্তার। উলে¬খ্য, গত শনিবার থেকে গন্ডামারা এলাকায় পুলিশের সাড়াশী অভিযান পরিচালনার কারণে পর্যাপ্ত গাড়ি না থাকায় ওই ছাত্রীটি সুদূর ঐ এলাকা হতে পরীক্ষা কেন্দ্র বাঁশখালী আলাওল ডিগ্রী কলেজে যথাসময়ে পৌছতে পারেনি। পরীক্ষা শুরু হয়ে প্রায় ৩৫ মিনিট পর সে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌছে। এ সময় তাকে যথাসময়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে না আসার অভিযোগে পরীক্ষার হলে ঢুকতে দেয়নি পরীক্ষা কেন্দ্র নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে বাঁশখালী আলাওল ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ ইদ্রিছের কাছে অনেক আকুতি মিনতিও করে সে। কিন্তু ওই অধ্যক্ষ তার এই আকুতিতে সাড়া দেয়নি। এই বিষয়ে ফরজানা আক্তার বলেন, আমি অধ্যক্ষ স্যারকে বুঝিয়েছি। আমার এলাকা গন্ডামারায় গত কয়েকদিন ধরে পুলিশের বিশেষ অভিযানের ফলে যথানিয়মে গাড়ী না পাওয়ায় পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে সময় ক্ষেপন হয়েছে। আমি এজন্য অত্যন্ত দুঃখ প্রকাশ করেছি। যেহেতু এটি অনিচ্ছাকৃত ভুল মাত্র। অপরদিকে এটি আমার এইচএসসি’র শেষ পরীক্ষা ছিল। আমি স্যার অনেক অনুনয় বিননয় করেছি। স্যার আমাকে বলেন, “আমি চাইলে পরীক্ষার খাতা দিতে পারি”। কিন্তু বিশেষ অসুবিধার কারণে আমি তা দিতে পারছি না।” একথা বলে স্যার আমাকে অফিস থেকে বের করে দেয়। এরপর আমি অত্যান্ত মর্মাহত হয়ে পড়ি এবং জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। পরবর্তীতে আমাকে বাঁশখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আমি পুনরায় পরীক্ষাটি দেওয়ার জন্য সংশি¬ষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের প্রতি আবেদন জানাচ্ছি।
এ ব্যাপারে বাঁশখালী আলাওল ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ ইদ্রিছ বলেন, ওই ছাত্রীটি পরীক্ষা কেন্দ্রে যথাসময়ে উপস্থিত না হওয়ায় আমি বিষয়টি বোর্ড কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুসারে তাকে পরীক্ষার খাতা দেওয়া হয়নি।

মতামত...