,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

বাঁশখালীর গন্ডামারা ব্রীজ যেন মরণফাঁদ !

gandamara-birigeশাহ্ মুহাম্মদ শফিউল্লাহ, বাঁশখালী, বিডিনিউজ রিভিউজঃ চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার গন্ডামারার আশরাফ আলী রোড সংলগ্ন বেইলী ব্রীজটি জ্বারাজীর্ণ হয়ে দীর্ঘদিন ধরে পড়ে থাকায় ব্রীজটির পাটাতন গুলো নিয়ে যাচ্ছে এলাকার কতিপয় দুর্বৃত্তরা। বর্তমানে যোগাযোগের জন্য যে পাকা ব্রীজটি রয়েছে তারও দুই পাশের মাটি সরে গিয়ে চলাচল অযোগ্য হয়ে পড়েছে। ফলে জনগণের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে। বর্তমানে এই ব্রীজ দিয়ে বাধ্যগত চলাচল করতে হচ্ছে সর্ব সাধারণকে। কিন্তু যেকোন মুহুর্তে এই ব্রীজে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা কিংবা প্রাণ হানির মত ঘটনা। বহু বছর পূর্বের স্টীল ব্রীজটি চলাচলের অযোগ্য হওয়ার পর সবাই বর্তমান পাকা ব্রীজ দিয়ে একমাত্র যাতায়াতের মাধ্যমে হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। একদিকে ব্রীজের দুই পাশের মাটি সরে যাওয়া, গন্ডামারার অভ্যন্তরীন রাস্তা গুলোর বেহাল দশা, সবমিলিয়ে এক প্রকার দুর্ভোগের মধ্যে এ এলাকার জনগণ।

১৯৯৬ সালে কোটি টাকা ব্যয়ের মাধ্যমে বাঁশখালী গন্ডামারা বাজার সেতু নামে এলাকার জনগুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা করে উপকূলের সাথে পূর্বাঞ্চলের জনগণের যোগাযোগ রক্ষার্থে এই সেতুটি নির্মাণ করা হয়। বাঁশখালীর উপকূলীয় এলাকার মধ্যে অন্যতম গন্ডামারায় প্রচুর পরিমাণে লবণ উৎপাদন ও চিংড়ি হয়ে থাকে। প্রতিবছর হাজার হাজার টন লবণ এই গন্ডামারা উৎপাদন হয়। এই ব্রিজের উপর দিয়ে লবণ পারাপার করতে গিয়ে ব্রিজের পাটাতন গুলো নষ্ট হয়ে যায়। অপরাপর যন্ত্রাংশ গুলো ঠিক মত থাকলেও নিচের পাটাতন গুলো নষ্ট হয়ে যাওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেকটা ভেঙে পড়ে। অপর দিকে এই ব্রিজের দক্ষিণ পার্শ্বে নির্মিত অপর একটি ব্রিজ নির্মিত হলেও এই ব্রিজের উঠা নামার সংযোগস্থলে অতি ঝুঁকিপূর্ণ এবং যেকোন সময় ভেঙে পড়তে পারে। বিগত এক বছরে এই ব্রীজের মধ্যে গাড়ী পারাপারে উল্টে গিয়ে শতাধিক লোক আহত হয়েছে বলে জানা যায়। ফলে স্থানীয় জনগণ গন্ডামারা বাজার ব্রীজটি নষ্ট হয়ে যাওয়া পাটাতন গুলো পুনরায় ঠিক করে তা চলাচলে সুযোগ সৃষ্টি করার জন্য আহবান জানান। এই ব্যাপারে গন্ডামারার ব্যবসায়ী আবু আহমদ বলেন, গন্ডামারা ব্রীজটি কোন কারণে ভেঙে পড়লে সদরের সাথে আমাদের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে। তাই প্রশাসন এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা গুরুত্ব বিবেচনা করে এই ব্রীজ এবং সড়কটি জরুরী ভিত্তিতে সংস্কার করা প্রয়োজন।

এছাড়াও গন্ডামারার মধ্যম হাদীর পাড়া সড়ক গন্ডামারা বাজার থেকে ওয়াফদা বেড়িবাঁধ মধ্যম সড়কসহ গন্ডামারায় অবস্থিত অধিকাংশ সড়ক এখন চলাচল অযোগ্য হয়ে পড়েছে। বন্যায় এবং দুর্দিনে যাতায়াত করতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয় এই এলাকায়। বাঁশখালীর গন্ডামারা ইউনিয়নের সাথে পূর্বাঞ্চলের যোগাযোগের এক সময়ের অন্যতম ব্রীজ গন্ডামারা বাজার ব্রীজটি বর্তমানে লবণ পরিবহনের মাধ্যমে পাটাতন নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এই ব্রীজের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ নিয়ে যাচ্ছে স্থানীয় জনগণ। অথচ এই ব্রীজটি চলাচলের পাটাতন গুলো পরিবর্তন করা সম্ভব হলে স্থানীয় হাজার হাজার জনগণ চলাচলে সুফল ভোগ করতো। নতুবা এই ব্রিজের যন্ত্রাংশগুলো সরকারি ভাবে টেন্ডার আহবান করে অন্যকোথায় বসানো গেলে তাতে সরকার অনেক রাজস্ব পেত।

মতামত...