,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয় ভুটান ৭ই ডিসেম্বরে

16decঢাকা,০৬ডিসেম্বর (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম): ৭ই ডিসেম্বর, ১৯৭১। বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে বীর বাঙ্গালী। ভারত আর মিয়ানমারের পর বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয় ভুটানও। পরাজয় নিশ্চিত জেনে আরো নৃশংস হয়ে উঠে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী। মুক্তিযোদ্ধারাও শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও মাতৃভূমি মুক্ত করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। এই দিন মুক্ত হয় ব্রাক্ষèমবাড়িয়ার আশুগঞ্জ, সরাইল, দূর্গাপুরসহ সিলেটের কিছু অংশ।

দক্ষিণ এশিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদে আলোচনা করেন বিশ্ব নেতারা। ৭ই ডিসেম্বর সাধারন পরিষদে সংখ্যাগরিষ্ঠতার মতে সিদ্ধান্ত আসে যুদ্ধ বিরতির।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর নবম পদাতিক বাহিনী  যশোর ক্যান্টনমেন্টে আক্রমন করে অপ্রতিরোধ্য গতিতে। পালিয়ে যায় পাকিস্তানী বাহিনী।

শুরু থেকে সশস্ত্র যুদ্ধ পরিচালনা করছিলেন এস ফোর্সের প্রধান তৎকালীন মেজর কে এম শফিউল্লাহ। ব্রাহ্মণবাড়িয়া, আখাউড়া, আশুগঞ্জ ছুটে বেড়িয়েছেন নিজ ভুমি শত্রুমুক্ত করতে।

ভারতের সীমান্তে শরণার্থী শিবিরেও তখন আশার আলো। স্বাধীনতার সূর্য উদিত হবেই। মুক্তিযুদ্ধে মিত্রবাহিনীর সহযোগিতা ইতিহাস থেকে মুছে ফেলার নয়।

পরাজয় নিশ্চিত জেনে ঘাপটি মেরে থাকা হায়েনারা শেষরক্ষার জন্য চালায় মারণাস্ত্র। মুক্তিযোদ্ধারাও বাজি ধরেন জীবনের। চোখে স্বপ্ন স্বাধীনতার।

 

মতামত...