,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

বান্দরবানে ভালো স্কুলে ভর্তির নামে পাচার কালে ৪ উপজাতীয় শিশু উদ্ধার

বান্দরবান সংবাদদাতা, ৩ জানুয়ারী, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: ভালো স্কুলে ভর্তির কথা বলে বান্দরবান থেকে পাচারের সময় ৪টি মারমা উপজাতীয় বালিকা শিশুকে উদ্ধার করেছে বান্দরবান সদর থানার পুলিশ। গত রোববার রাতে শহরের একটি আবাসিক হোটেল থেকে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত শিশুরা হচ্ছে মংহ্লাই মারমা (১০), মেসিং প্রু মারমা (১৩), নুচিং উ মারমা (১১) এবং হ্লাচিং শৈ মারমা (১০)। পুলিশ পাচারকারী দলের সদস্য মংশৈ প্রু ত্রিপুরাকে গ্রেপ্তার করলেও অপর একজন পাচারকারী পালিয়ে গেছে।
রোববার রাতে থানা চত্বরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সম্পা রানী সাহা জানিয়েছেন, অভিভাবকদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে সদর থানার পুলিশ দল একটি আবাসিক হোটেল থেকে ৪ মারমা উপজাতীয় শিশুকে উদ্ধার করে এবং পাচারকারী হিসেবে একজনকে গ্রেপ্তার করে। তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। শিশুরা রোয়াংছড়ি উপজেলার তারাছা ইউনিয়নের বৈদ্যপাড়া ও হেডম্যান পাড়ার মারমা পরিবাররের সন্তান। ভাল স্কুলে ভর্তি করানোর খরচ হিসেবে এদের প্রত্যেকের জন্য ৫ হাজার টাকা করে দাবি করা হয়েছিল, তবে প্রাথমিকভাবে গত রোববার এক হাজার টাকা করে আদায় করেন পাচারকারী চক্র।
পুলিশ সুপার সনজিত কুমার রায় বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে বিজিবির সহায়তায় এক ভান্তের নেতৃত্বে মিয়ানমারে পাচার হওয়া ১১জন কিশোরীকে উদ্ধার করেছিল। তারা সবাই রোয়াংছড়ি উপজেলার তারাছা ইউনিয়নের বিভিন্ন পাড়ার বাসিন্দা।
সহজ-সরল মনের মারমা উপজাতীয় কৃষক পরিবারদের কাছ থেকে এসব কিশোরীকে বৌদ্ধ বিহারে বিনাখরচে লেখাপড়া করানোর নামে ওই ভান্তেসহ একটি চক্র মিয়ানমারসহ বিভিন্ন দেশে শিশুদের পাচার করে আসছিল। একইভাবে গত রোববার রাতে উদ্ধারকৃত ৪ মারমা শিশু পাচারকারী চক্রের হাতে পড়ে। শিশুদের অভিভাবক এবং পুলিশ সজাগ থাকায় এসব শিশু পাচারের শিকার থেকে রক্ষা পায়। থানায় এমটি মামলা হয়েছে। পুলিশ শিশু পাচারকারীদের গ্রেপ্তারে বিশেষ অভিযানও শুরু করেছে।

মতামত...