,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

বিএনপির নতুন কমিটি হতে ফালুর পদত্যাগের ঘটনায় বিস্ময়

falo-kaledaনিজস্ব প্রতিবেদক,, বিডিনিউজ রিভিউজঃ  বিএনপির নতুন কমিটিতে ভাইস চেয়ারম্যানের পদ পাওয়ার কয়েক ঘণ্টার মাথায় মোসাদ্দেক আলী ফালুর পদত্যাগের ঘটনা বিস্ময় সৃষ্টি করেছে।

ফালুর মালিকানাধীন অনলাইন নিউজ পোর্টাল এনটিভি অনলাইনে ছোট করে তার পদত্যাগের খবরটি উল্লেখ করা হলেও কোনো কারণ ব্যাখ্যা করা হয়নি।

কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবার প্রায় সাড়ে চার মাস পর শনিবারই ৫ শতাধিক সদস্য বিশিষ্ট বিএনপির নির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়। এই কমিটিতে চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পরই ভাইস চেয়ারম্যানদের পদাধিকার।

নতুন কমিটিতে মোট ৩৫ জন ভাইস চেয়ারম্যান রয়েছেন, যার মধ্যে মোসাদ্দেক আলী ফালু ছিলেন ২২ নম্বরে।

তার পদত্যাগে বিস্ময় প্রকাশ করে রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও সাংবাদিক আমানুল্লাহ কবির বলেন, ‘মোসাদ্দেক আলী খালেদা জিয়ার অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ এবং বিশ্বস্ত। তার পদত্যাগ নিঃসন্দেহে সবাইকে বিস্মিত করেছে।’

মোসাদ্দেক আলী ফালু এর আগে খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ছিলেন।

২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এলে তখনকার প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হন ব্যবসায়ী ফালু।

এখান থেকেই জাতীয় রাজনীতিতে তার উত্থান পরিলক্ষিত হয়। পরবর্তীতে তার মালিকানায় জনপ্রিয় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভির আত্মপ্রকাশ এবং ঢাকার একটি সংসদীয় আসন শূন্য হলে সেটির উপনির্বাচনে অংশ নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়া তার ক্যারিয়ারে গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক হিসেবে বিবেচিত।

ওই সময়ে এবং পরবর্তীকে মোসাদ্দেক আলী বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ও আস্থাভাজন হিসেবে পরিগণিত হয়েছেন।

গণমাধ্যম ব্যবসায়ী হিসেবে এরই মধ্যে মোসাদ্দেক আলী ফালু অত্যন্ত শক্ত অবস্থানে পৌঁছেছেন।

বাংলাদেশে ‘অ্যাটকো’ নামে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল মালিকদের যে সংগঠনটি রয়েছে, মোসাদ্দেক আলী সেটির সভাপতি।

জানা গেছে, চিকিৎসার জন্য ফালু এখন থাইল্যান্ডে অবস্থান করছেন এবং লোক মারফৎ তিনি তার পদত্যাগ পত্রটি পাঠিয়ে দিয়েছেন।

নতুন কমিটির একজন সহ-প্রচার সম্পাদক শামীমুর রহমানও কমিটিতে থাকতে অনীহা প্রকাশ করেছেন বলে খবরে জানা যাচ্ছে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

 

মতামত...