,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

বিতর্কে নতুন মোড়, ট্রাম্প-‌পত্নীর বিকিনি শ্যুটের ছবি দেখছিলেন শিক্ষামন্ত্রী

tনিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ একের পর এক বিতর্ক। বিতর্ক যেন পিছু ছাড়তে চাইছে না তনবীর শেটের। কর্নাকটের শিক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে ১০ নভেম্বর রায়চুরে টিপুজয়ন্তীর অনুষ্ঠানের মঞ্চে বসে পর্ন দেখার অভিযোগ উঠেছিল।

মঞ্চে লাগানো সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়েছিল সেই ছবি। এখন জানা যাচ্ছে, পর্ন নয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়ার ছবি দেখছিলেন তিনি। অতীত জীবনে সুপারমডেল ছিলেন মেলানিয়া। চোখ ধাঁধানো এই সুন্দরী খ্যাতির শীর্যে উঠেছিলেন বিকিনি ফটোশ্যুটের দৌলতে।

কংগ্রেস নেতা তনবীর সেরকমই একটি ফটোশ্যুটের ভিডিও দেখছিলেন বলে জানা যাচ্ছে। স্বভাবতই বিষয়টি নিয়ে সরব হয়েছেন বিরোধীরা। বিষয়টি নিয়ে রাজ্যপালের কাছে অভিযোগ জানানোর কথাও ভাবছেন তারা। ইতিমধ্যেই তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে এই ফুটেজ খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

তদন্তকারী এক পুলিশ কর্মকর্তা বলছেন, ‘যে ভিডিও ফুটেজ পাওয়া গেছে, তাতে মেলানিয়ার ছবি স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে। ইন্টারনেট ঘেঁটে আমরা জানতে পেরেছি, ১৫ বছর আগে ওই ফটোশ্যুটটি করা হয়েছিল।

এদিকে, তনবীর ঘনিষ্ট এক নেতার দাবি, মন্ত্রী মেলানিয়ার ছবি দেখছিলেন না। তাকে মোবাইলে কেউ ছবিগুলি পাঠিয়েছিলেন এটা ঠিক, কিন্তু সেই সময় , তনবীর তার মোবাইলের অন্য মেসেজ খুলে দেখছিলেন। পরপর মেসেজগুলি ‘‌স্ক্রোল’‌ করতে গিয়ে কোনওভাবে মেলানিয়ার ছবি দেখা গেছে সিসিটিভি-‌তে। যদিও এর আগে উল্টো যুক্তি দিয়েছিলেন তনবীর নিজে।

তিনি বলেছিলেন, ‌আমি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের খবর পড়ছিলাম। সেখানে ওই ছবি ছিল।’‌ তনবীর শিবিরের এই পরস্পর বিরোধী মন্তব্যে ধোঁয়াশা আরও বেড়েছে। যদিও রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বি জে পি এই যুক্তি মানতে নারাজ৷ বি জে পি নেতা কে এস এসওয়ারাপ্পা বলেছেন, ‘একজন শিক্ষামন্ত্রী যখন এরকম কাজ করেন, তখন তিনি ওই পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়ে ফেলেন৷’

অবশ্য কর্নাটকে এরকম ঘটনা এই প্রথম নয়৷ ২০১২-তে বিজেপির মন্ত্রী লক্ষ্মণ সাভাদি ও সি সি পাতিল বিধানসভায় বসে পর্নোগ্রাফি দেখছিলেন বলে অভিযোগ৷ ওই ফুটেজ প্রকাশ্যে আসতেই দেশজোড়া বিতর্কের জেরে দু’‌জনেই পদত্যাগ করেন৷

মতামত...