,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

বেনাপোল ইমিগ্রেশনে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

aআনোয়ার হোসেন লিখন, যশোর সংবাদদাতা, বিডিনিউজ রিভিউজঃ বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের লক্ষ্যে ঈদে ৬০ হাজার বাংলাদেশীকে ভিসা দিয়েছেন-ভারতীয় হাইকামিশন। ঈদের আগে ও পরে প্রায় ২২ হাজার পাসপোর্ট যাত্রী বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে ভারতে গেছে বলে জানা যায়। অভিযোগ, কাস্টমস ও পুলিশ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জোর পূর্বক বেশিরভাগ পাসপোর্ট যাত্রীর কাছ থেকে মাথাপিছু ৫ শ’ টাকা করে আদায় করেছে বলে অভিযোগ করেছে । ভারতীয় হাইকমিশন ইমিগ্রেশন জনবল না বাড়িয়ে ৬০ হাজার ভিসা দেওয়ায় এই অবস্থা তৈরী হয়েছে। সাংবাদিকরা সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে কাস্টমস ও পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন,ওসব লিখে লাভ নেই। ঈদের আগে ও পরে এ রকম একটু হয়। সবাইকে এই টাকার ভাগ দিতে হয়। চিকিৎসা ব্যবসা সহ ভারত ভ্রমনে ভারতে যায় অনেকে। এবারের ঈদে পাসপোর্ট যাত্রীদের বেনাপোল ইমিগ্রেশনে ভিড় ছিলো চোখে পড়ার মত। খোলা আকাশের নিচে দীর্ঘ লাইনে দাড়িয়ে দুর্ভোগে পড়েন কয়েক হাজার নারী শিশু ও পুরুষ। আর এ সুযোগে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের জন্য ধীর গতিতে পাসপোর্ট এন্ট্রী করছে কাস্টমস ও পুলিশ কর্মকর্তারা।অভিযোগ আছে, একজন কাস্টমস সুপার  ও একজন পরিদর্শক ওই অনৈতিক কাজের গুরু দায়িত্বভার নিয়েছেন। জানা গেছে, যাত্রীরা-ঘন্টার পর ঘন্টা চেকপোষ্টে আটকে থাকায় প্রচন্ড গরমে অসুস্থ্য হয়ে পড়ছে মানুষ জন। বাংলার সর্ব বৃহৎ আন্তর্জাতিক স্থলবন্দর বেনাপোল। বেনাপোল থেকে কলিকাতার দুরত্ব মাত্র ৮৪ কিলোমিটার। প্রতিদিন এ পথে তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার পাসপোর্টধারী যাত্রী ভারতে প্রবেশ করে। বেনাপোল চেকপোষ্ট ইমিগ্রেশন ওসি ইকবাল মাহমুদ জানান, অভিযোগ অতটা সত্য নয়। ইমিগ্রেশন ও কাস্টমের কাজ ধীর গতির বিয়য়টি তিনি স্বীকার করেন।

মতামত...