,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

বোয়ালখালীর ভাঙারীর দোকানে ন্যাশনাল আইডির খোঁজে নির্বাচনী কর্মকর্তা

nid2নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃচট্টগ্রাম, চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলায় ভাঙারীর দোকানে জাতীয় পরিচয় পত্র পাওয়ার ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা। বুধবার (৬এপ্রিল) সকাল ১১টায় জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ খোরশেদ আলম গোমদন্ডী ফুলতলা এলাকার মোহাম্মদ আলমগীরের ভাঙারীর দোকান পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি দোকানের মালিক আলমগীরের বক্তব্য শোনেন।

এদিকে এ ঘটনায় এছাড়া জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের দায়িত্বপালনকারী ২০১২ সালে মাষ্টাররোল জমাদানকারী সুপারভাইজারকে ৭দিনে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান ও বাকিদের সর্তক করার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইলিয়াছ কামাল রিসাত। তিনি আরো জানান, সম্প্রতি যোগদান করে এ নির্বাচন অফিসের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনাসহ জনদূর্ভোগ লাঘবে কাজ করে যাচ্ছি।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. খোরশেদ আলম বলেন, বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখা হচ্ছে। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্থানীয়রা জানান, ঘটনার ৪ দিনপর দায়সারা তদন্ত করে নির্বাচন কর্মকর্তারা বিষয়টি উদোর পিন্ডি ভুদুর ঘাড়ে চাপাচ্ছেন। নির্বাচনী কর্মকর্তারা বলছে যে সকল শিক্ষকদের কার্ড বিতরণের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তাদের পক্ষ থেকে এসব কার্ড অন্যত্র চলে গেছে।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ৯ অক্টোবর ইসুকৃত্য বেশ কিছু জাতীয় পরিচত্র পত্র (এনআইডি কার্ড) গত ২ এপ্রিল বোয়ালখালী গোমদন্ডী এলাকার একটি ভাঙ্গারীর দোকানে পাওয়া যায়। পোপাদিয়া ইউনিয়নের লোকজন কার্ড চিনতে পেরে কিছু কার্ড নিয়ে যায় ও বেশ কিছু কার্ড স্থানীয় চেয়ারম্যানের কাছে জমা দেয়া হয়।

স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জাতীয় পরিচয় পত্র না আসায় দিনকে দিন সার্ভার অফিসে ধর্ণা দিতে হচ্ছে। এছাড়া আইডি কার্ড না থাকায় বিভিন্ন দরকারি কাজে হয়রানি শিকার হতে হচ্ছে।

ভাঙ্গারীর দোকানদার আমলগীর জানান, গত ২০/২৫দিন আগে এক ভাঙ্গারী বিক্রেতার কাছ থেকে আমার দোকানে সংগ্রহ করি। তাতে এসব আইডি কার্ড পাই। কিছু কার্ডের ঠিকানা চিনতে পারায় তা পরিচিতদের দিয়ে দিই। বেশির ভাগই আইডি কার্ডগুলোই আমার কাছে ছিল। পরে তা নির্বাচনী কর্মকর্তারা নিয়ে যায়।

বি এন আর/০০১৬/০০৪/০০৬/০০০৪৮৫৫/ এস

মতামত...