,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ব্যস্ত সময় পার করছেন খালেদা ও তারেক

নিজস্ব প্রতিবেদক,  বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা,  বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া জাতীয় কাউন্সিলের পর এখন  গুলশানে নিজ বাসভবন ‘ফিরোজা’য় ও  লন্ডনে ব্যস্ত সময় পার করছেন দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।Khaleda - Taruq

চলতি সপ্তার শেষ নাগাদ ঘোষণা হতে  পারে বিএনপির নতুন কমিটি। প্রথম দফায় মহাসচিব ও দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির নাম ঘোষণা হতে পারে।

কাউন্সিলের ৭ দিন পার হলেও কোনো কমিটি ঘোষণা না হওয়ায় পদপ্রত্যাশী নেতারা খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের আশপাশে থাকা কর্মকর্তা, অফিস স্টাফ ও ঘনিষ্ঠজনদের সঙ্গে  যোগাযোগ রক্ষা করে চলছেন।

কাঙ্ক্ষিত পদের তালিকায় নিজের নাম থাকা না থাকার আশার চোরাবালিতে খানি টেনশানে আছেন!  হরহামেশা ল্বিং করে যাচ্ছেন উপর মহলে। কেউ কেউ গুলশানে খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে ঢুঁ মারছেন। ভেতরের খবর জানার জন্য টাইপিংয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত কর্মচারীদের সাথেও শখ্যতা করছেন।

আগাম ফাঁস হওয়ার শঙ্কা থেকে বিএনপি চেয়ারপারসন  খালেদা জিয়ার বাসভবনে প্রবেশাধিকার সিমিত করা হয়েছ।

ফলে দলের শীর্ষ নেতা, কর্মকর্তা বা অফিস স্টাফরাও জানতে পারছেন না, কাকে কোন পদে বসাচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপারসন, কেমন হচ্ছে কমিটির আকার, কে বাদ পড়ছেন অথবা নতুন করে কে বা কারা ঢুকছেন বিএনপির কমিটিতে।

কমিটি গঠনের বড় কাজটি হচ্ছে লন্ডনে। সেখানে অবস্থানরত বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান অতি গোপনীয়তার মধ্যে কমিটি গঠনের কাজ করছেন।

লন্ডন সূত্রে জানা গেছে, খালেদা জিয়ার মত তারেক রহমানও কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে আশপাশে কারো সঙ্গে কোনো কিছু শেয়ার করছেন না। নিজের উপদেষ্টা ও ঘনিষ্ঠজনদের সঙ্গে এ নিয়ে কোনো আলাপ আলোচনা করছেন না তারেক রহমান।

তার কাছে সরবরাহ করা পদপ্রত্যাশী নেতাদের তালিকা থেকেই যোগ্য, অনুগত, সক্রিয়, মেধাবী ও প্রজ্ঞাবানদের বেছে নিচ্ছেন তিনি। এ কাজে সরসারি কারো সহযোগিতা নিচ্ছেন ‍না।

তবে, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ভারমুক্ত হচ্ছেন এ খবর ছাড়া তেমন কোন তথ্য পাওয়া যায়নি এ যাবত। তবে খুব শিগ্রিই তা জানা যাবে।

বি এন আর/০০১৬/০০৩/০০২৮/০০৩৬০২/এন

মতামত...