,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ভালো লভ্যাংশ ঘোষণায় ও ব্যাংক শেয়ারদরে উন্নতি নেই

399শেয়ারবাজার  প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা, চার ব্যাংকের ভালো লভ্যাংশ ঘোষণার পরও এ খাতের কোম্পানিগুলোর শেয়ারদরে উন্নতি নেই। গত দুই সপ্তাহে ব্যাংকগুলো ১৫ থেকে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। তার পরও গত সপ্তাহে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া ৩০ ব্যাংকের মধ্যে ২২টিরই দর কমেছে। বেড়েছে মাত্র চারটির।

এইমস প্রথম ও গ্রামীণ ওয়ান স্কিম-১ মিউচুয়াল ফান্ডের অবসায়নকে ঘিরে গত সপ্তাহে বাজারে এক ধরনের মনস্তাত্তি্বক ভীতি ছিল। এই দুই ফান্ডের শেয়ার বিক্রির কারণে সার্বিকভাবে দরপতন হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকেই। ব্যাংক খাতও এর বাইরে ছিল না। ফলে চার ব্যাংকের ভালো লভ্যাংশ ঘোষণার ইতিবাচক প্রভাব বাজারে নেই- এ কথা এখনই বলা যাবে না এমন মন্তব্য বাজার-বিশ্লেষকদের।
ডিএসই সূত্রে পাওয়া তথ্যানুযায়ী, ৩ মার্চ সাউথইস্ট ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর আগে ২৮ ফেব্রুয়ারি ওয়ান ব্যাংক সাড়ে ১২ শতাংশ বোনাসসহ ২৫ শতাংশ এবং ২৫ ফেব্রুয়ারি ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক ৫ শতাংশ বোনাসসহ ২৫ শতাংশ লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা দেয়।  গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ডাচ্-বাংলা ব্যাংক শেয়ারহোল্ডারদের ৪০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। বিভিন্ন ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, আগের বছরের তুলনায় গত বছর ব্যাংকগুলোর মুনাফাও ভালো হয়েছে। ফলে এবার ব্যাংকগুলোর ভালো লভ্যাংশ দেওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

ডিএসইর গত দুই সপ্তাহের লেনদেন পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গত ২৩ ও ২৪ ফেব্রুয়ারি ডাচ্-বাংলার লভ্যাংশ ঘোষণার পর ২৪ ব্যাংকের শেয়ারদর বেড়েছিল। এমনকি আগের দিনের তুলনায় এ খাতের লেনদেন দ্বিগুণ বেড়ে ৬০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছিল। তার পর প্রতিদিনই কমেছে বেশিরভাগ ব্যাংকের শেয়ারদর।

তবে এক্ষেত্রে কিছুটা ব্যতিক্রম দেখা যাচ্ছে ব্যাংক-বহির্ভূত আর্থিক খাতে। গত সপ্তাহে সব খাতের সিংহভাগ কোম্পানির শেয়ারদর কমলেও কিছুটা ভিন্ন চিত্র ছিল এ খাতে। খাতটির ২৩ কোম্পানির মধ্যে ১২টির দর বেড়েছে, কমেছে ৯টির এবং বাকি দুটির দর অপরিবর্তিত থেকেছে। এক্ষেত্রে কয়েকটি ব্যাংক-বহির্ভূত আর্থিক খাতের কোম্পানির ভালো লভ্যাংশ ঘোষণার প্রভাব থাকতে পারে।

গত সপ্তাহে ফনিক্স ফাইন্যান্স কোম্পানির পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ প্রদানের সুপারিশ করেছে। এ ছাড়া লংকাবাংলা ফাইন্যান্স ১৫ শতাংশ নগদ ও ১৫ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ, আইডিএলসি ফাইন্যান্স ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ, ইউনাইটেড ফাইন্যান্স ৫ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ও আইপিডিসি ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ প্রদানের ঘোষণা দিয়েছে। তবে প্রাইম ফাইন্যান্সের পর্ষদ কোনো লভ্যাংশ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে।

প্রাপ্ত তথ্য পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ব্যাংক-বহির্ভূত আর্থিক খাতের তুলনায় ব্যাংক খাতের কোম্পানিগুলোর শেয়ারদর ও ঘোষিত লভ্যাংশ বেশ ভালো।

 

 

বি এন আর/০০১৬০০৩০০৬/০০০৯৭/পি

মতামত...