,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

ভিশন গ্রিন ও ক্লিন সিটি,১টি অবৈধ বিলবোর্ডও থাকবে নাঃমেয়র

987নিজস্ব প্রতিবেদক,চট্টগ্রাম,১৮, জানুয়ারি (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম)::  গ্রিন ও ক্লিন সিটির লক্ষ্যে অবৈধ বিলবোর্ড স্বউদ্যোগে সরানোর জন্য তিন দিনের সময় বেঁধে দিয়েছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক)। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে না সরালে মালিকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে চসিক। একইসাথে গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া ক্রাশ প্রোগ্রামও চালু থাকবে। রবিবার মেয়রের সাথে চসিকের বিভাগীয় ও শাখা প্রধানদের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন জানান, অবৈধ বিলবোর্ড মালিকদের তিন দিনের সুযোগ দেয়া হচ্ছে। এইসময়ের মধ্যে তারা স্বউদ্যোগে নিজেদের বিলবোর্ড নিজেরা নিয়ে যেতে পারবে। তবে চসিকের ক্রাশ প্রোগ্রাম বন্ধ হবে না। নির্ধারিত সময়ের পর আর কাউকে বিলবোর্ড ফেরত দেয়া হবে না। কেউ নিতে চাইলে তাকে আইনানুযায়ী জরিমানা গুনেই নিতে হবে।

বৈঠকে মেয়র বলেন, নগরীর সৌন্দর্য্যহানিকর ও অসুন্দর অবৈধ বিলবোর্ড, স্থাপনা, ব্যানার, সাইনবোর্ড, প্লে-কার্ড, ফেস্টুন, ইত্যাদি স্বউদ্যোগে ৩ দিনের মধ্যে সরিয়ে নিতে হবে। পাশাপাশি সিটি কর্পোরেশনের অভিযানও অব্যাহত থাকবে। নগরীতে বিদ্যমান সকল বিদ্যুতের খুঁটি, টিএন্ডটি খুঁটিসহ নগরজুড়ে অবৈধ ব্যানার ফেস্টুন, প্লে-কার্ড ও সাইনবোর্ড সাঁটানো আছে, যার একটিও বৈধ নয়। সৌন্দর্যহানিকর সবকিছু অপসারণ করে নগরীকে ক্লিন করা হবে। তিনি বলেন, সুযোগ দেয়ার পরও অবৈধ ।

ব্যানার, ফেস্টুন, প্লে-কার্ড, সাইবোর্ড, বিলবোর্ড ইত্যাদি স্বউদ্যোগে সরাতে অপারগ হলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনের যথাযথ প্রয়োগ অব্যাহত থাকবে। বৈঠকে নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডের অলিগলি সড়কে প্যাচওয়ার্ক জোরদার করারও নির্দেশ দেয়া হয়। বৈধকে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মো. শফিউল আলম, সচিব রশিদ আহমদ, মেয়রের একান্ত সচিব মোহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলাম, প্রকৌশল, পরিচ্ছন্ন, হিসাব, রাজস্ব, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ সকল বিভাগের প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।

মতামত...