,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মন্ত্রিসভা সম্প্রসারিত হচ্ছে, আসছেন নতুন ৫ মুখ

hasinaনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মন্ত্রিসভা সম্প্রসারিত হচ্ছে। খুব শিগগিরই আসছেন নতুন ৫ মুখ। প্রধানমন্ত্রীর জাপান সফরের আগে বা পরে ৫ মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর শপথ নেয়ার কথা রয়েছে। সরকারের নীতি-নির্ধারক মহল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সমাজকল্যাণমন্ত্রীর পদটি শূন্য হওয়ার পর অন্য কোনো মন্ত্রীকে এর দায়িত্ব দেয়ার প্রশ্ন উঠলে প্রধানমন্ত্রী তা সরাসরি নাকচ করেন, তার মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণের কথা বলেন। বিদেশ সফরসহ নানা ব্যস্ততায় প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিসভায় রদবদল করতে পারেননি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তিন দিনের সফরে কাল বৃহস্পতিবার জাপান যাচ্ছেন। তার আগেই তিনি মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ করতে চান। এজন্য আজ বুধবার মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণের সম্ভাবনা খুব বেশি। জাপান থেকে ফিরে তার সৌদি আরব সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে। তাছাড়া সামনে ১ জুন বাজেট অধিবেশন শুরু হবে। এর আগেই রদবদল হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ প্রসঙ্গে বলেন, মন্ত্রিসভায় রদবদলের কোনো নির্দেশনা তিনি পাননি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক সিনিয়র মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ করছেন। এ তালিকায় আওয়ামী লীগের ৫ নেতা আছেন। এর মধ্যে একজন বয়সে খুবই তরুণ।

নতুন মন্ত্রীদের তালিকায় সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, রাজশাহী বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল স্বপনের নাম আলোচনায় আছে বলে জানা গেছে।

গুঞ্জন রয়েছে, চিকিৎসক হওয়ার সুবাদে ডা. দীপু মনিকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী, আর ক্রীড়া ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় নাজমুল হাসান পাপনকে যুবক্রীড়া মন্ত্রী করা হতে পারে। মোহাম্মদ নাসিমকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে সরিয়ে সমাজকল্যাণমন্ত্রী করা হতে পারে। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ে যেতে চান। সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে আছেন রাজশাহী বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল স্বপন।

বর্তমানে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় মন্ত্রীশূন্য। সমাজকল্যাণমন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলী মারা যান ২০১৫ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর। সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী প্রমোদ মানকিন মারা যান ১১ মে। এ মন্ত্রণালয়ে এখনো কোনো মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রী নিয়োগ দেয়া হয়নি। এই মন্ত্রণালয়ে একজন পূর্ণ মন্ত্রীকে নিয়োগ দেয়া হতে পারে। এ ছাড়াও আরো ৪ জন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী নিয়োগ দেয়া হতে পারে।

বর্তমান মন্ত্রিসভায় ৩১ জন মন্ত্রী, ১৮ জন প্রতিমন্ত্রী এবং দুজন উপমন্ত্রী রয়েছেন। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ উঠেছে। অনেক মন্ত্রীকে নিয়ে আইনি জটিলতাও রয়েছে। তবে এই মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের মন্ত্রিসভা থেকে সরিয়ে দেয়ার গুঞ্জন থাকলেও এখনই তা হচ্ছে না বলে একজন সিনিয়র মন্ত্রী আভাস দিয়েছেন। তার মতে, সংসদে বাজেট পেশ করার আগে রদবদল হওয়ারই কথা ছিল না। এখন একটি মন্ত্রণালয় আর কত দিন মন্ত্রীশূন্য থাকবে। এ কারণে হয়তো প্রধানমন্ত্রী ওই মন্ত্রণালয়েই নতুন মন্ত্রী নিয়োগ দিতে যাচ্ছেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে আগামী বৃহস্পতিবার মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণের ব্যাপারে প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে। এই নির্দেশনার আলোকেই মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ মন্ত্রীদের শপথ অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে। এ ব্যাপারে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে বঙ্গভবনেও যোগাযোগ করা হয়েছে।

মানবকণ্ঠ’র প্রতিবেদন।

 

মতামত...