,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মন্ত্রী হচ্ছেন চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী

m u chy hasiমীর মুহাম্মদ নাছির উদ্দীন সিকদার, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন মন্ত্রিসভা তৃতীয় দফায় সম্প্রসারণ করা হচ্ছে । এবারে  মন্ত্রিসভায় অন্তর্ভূক্ত হচ্ছেন চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র ও নগর অাওয়ামী লীগের সভাপতি এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী।

পাশাপাশি আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাদের আরও কয়েক জন এতে অন্তর্ভুক্ত হতে পরেন বলে শোনা যাচ্ছে।

আগামী সপ্তাহে মন্ত্রিসভার এই সম্প্রসারণ  হতে পারে বলে জানা গেছে। সরকারের শীর্ষ পর্যায়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে এমন আভাস পাওয়া গেলেও শেখ হাসিনার মন্ত্রিপরিষদে ঠিক কি ধরণের পরিবর্তন আসছে সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু জানা যায় নি ।

সচিবালয়ের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র ও মহিউদ্দিন চৌধুরী ঘনিষ্ট সুত্র এ বিষয়টি নিশ্চিত করলেও কেউই এ বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি।

জানা গেছে, গেল চট্টগ্রামের মেয়র নির্বাচনে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিনকে দলের মনোনয়ন ছেড়ে দিয়ে দলীয় কার্যক্রমে অংশ নেয়ায় দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহিউদ্দিন চৌধুরীর ওপর সন্তুষ্ট ও চট্টগ্রামে তার  অতীত রাজনীতিতে  তার ত্যাগের বিষয়টিও বিবেচনায় রাখা হচ্ছে।

চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র ও নগর অাওয়ামী লীগের সভাপতি এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘আই ডোন্ট নো। সেটি আপনারা এবং প্রধানমন্ত্রীই ভালো বলতে পারবেন। আমার কোনও চাকরি নেই। আমি বুড়ো হয়ে গেছি। এখন শুধু দলের জন্য কাজ করি। নেত্রী কী সিদ্ধান্ত নেন সেটি উনার বিষয়। তবে মন্ত্রী হচ্ছি কি হচ্ছি না সেটি আমার জানা নেই।’

মহিউদ্দিন ছাত্রজীবন থেকেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। পরবর্তীতে শ্রমিক লীগের রাজনীতি করে এক হাল ধরেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের।

মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিনের মুক্তিযুদ্ধকালে রয়েছে গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অটল থাকতে গিয়ে সামরিক শাসনসহ বিভিন্ন সময় তাকে কারাবরণ করতে হয়েছে।

স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন, চট্টগ্রাম বন্দর রক্ষা আন্দোলন, অসহযোগ আন্দোলনে চট্টগ্রামে নেতৃত্ব দেয়া মহিউদ্দিন আগের মতই সক্রিয় আছেন রাজপথে। জামায়াত ইসলামী হরতাল ডাকলে এখনও মহিউদ্দিন নেতাকর্মীদের নিয়ে নগরীতে হরতাল প্রতিরোধের ডাক দেন   ।

চট্টগ্রামের গণমানুষের এই নেতা টানা ১৭ বছর চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি অসংখ্য সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের মাধ্ম্যে সমাজে ভুমিকা রাখছেন।

প্রকাশ, ২০১৫ সালের ১৫ জুলাই নগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি নুরুল ইসলাম বিএসসিকে টেকনোক্র্যাট কোটায় প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তার সাথে প্রতিমন্ত্রী দুই জনকে পূর্ণ মন্ত্রী আর তারানা হালিমসহ মোট দুজনকে প্রতিমন্ত্রী করা হয়েছিল।

 

মতামত...