,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মহেশখালীতে ডাকাত-পুলিশ গুলি বিনিময় ২ পুলিশ আহত অস্ত্রসহ ডাকাত গ্রেপ্তার

আবদুর রাজ্জাক,কক্সবাজার প্রতিনিধি,বিডিনিউজ রিভিউজঃ কক্সবাজারের মহেশখালীতে ডাকাত ও পুলিশের মধ্যে প্রায় আধ ঘন্টাব্যাপী গুলি বিনিময়ের ঘটনায় একটি দেশীয় তৈরী এলজিসহ ও দুই রাউন্ড গুলিসহ কবির আহমদ(৩০) নামের এক ডাকাতকে আহত অবস্থায় গ্রেফতার করে পুলিশ। এই ঘটনায় পুলিশের দুই কনেষ্টবল রিদোয়ান ও পারেভেজ আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১১ সে্েপ্টম্বর রাত সাড়ে ৮ ঘটিকার সময় উপজেলার ক্রাইমজোন হিসেবে খ্যাত কালারমারছড়া ইউনিয়নের উত্তর নলবিলা এলাকায়। গ্রেফতারকৃত ডাকাত কবির আহমদ কালারমারছড়া ইউনিয়নের উত্তর নলবিলা দরগাঘোনা এলাকার আবদুল মোনাফের পুত্র বলে জানা গেছে। তার বিরুদ্ধে হত্যা,অস্ত্র,ডাকাতিসহ চারটি মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছেণ।

মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ বাবুল কান্তি বনিক জানান, ১১ সে্েপ্টম্বর রাত সাড়ে ৮ ঘটিকার সময় উপজেলার ক্রাইমজোন হিসেবে খ্যাত কালারমারছড়া ইউনিয়নের উত্তর নলবিলা বড়–য়া পাড়া কবরস্থান সংলগ্ন চালিয়াতলী-মাতারবাড়ি সড়কে একদল ডাকাত সড়ক ডাকাতির প্রস্তুতি কালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কালারমারছড়া পুলিশ ফাড়ির আইসি এস.আই বোরহান উদ্দিনের নের্তৃত্ব একদল পুলিশ উক্ত এলাকায় ডাকাত দলকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাত দল পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়লে পুলিশও আতœরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। এসময় অন্যান্য ডাকাতরা পিছু হঠে পালিয়ে গেলেও পুলিশ বাম হাতের তালুতে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত অবস্থায় ডাকাত কবির আহমদকে একটি দেশীয় তৈরী এলজিসহ ও দুই রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার করে। ডাকাত ও পুলিশের মধ্যে প্রায় আধ ঘণ্টা গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ্য করে ৫০ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে এবং পুলিশ আতœরক্ষার্থে ১০ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে বলে জানান অভিযান পরিচালনাকারী কালারমারছড়া পুলিশ ফাড়ির আইসি এস.আই বোরহান উদ্দিন। আহতদেরকে মহেশখালী হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
এই ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে মহেশখালী থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানাপ গেছে।

মতামত...