,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মাদক ও সন্ত্রাস নিউক্লিয়াস বোমা থেকেও ভয়ংকর: মেয়র

নিউজ ডেস্ক, ৩১ ডিসেম্বর, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, মাদক ব্যবসায়ীরা ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্র, দেশের অর্থনীতি সর্বোপরি একটি জাতিকে ধ্বংস করে দেয়। তারা নিউক্লিয়াস বোমা থেকেও ভয়ংকর। তাদের স্বমূলে নির্মূল করতে হবে। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ৫ম নির্বাচিত পরিষদের ১৭ তম সাধারণ সভায় মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে এবং ৪১টি ওয়ার্ডে মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা প্রণয়নের জন্য কাউন্সিলরদের দিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম মহানগরীকে মাদকমুক্ত করার লক্ষেই এই সমস্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। মেয়র আরো বলেন, ধর্মীয় মূল্যবোধ ও নীতিনৈতিকতার অবক্ষয়ের কারণে সমাজের মাদক ব্যবসায়ী, মাদক সেবী ও সন্ত্রাসীদের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। মাদক, সন্ত্রাস একই সূত্রে গাঁথা। তাই এদের ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধের মধ্য দিয়ে সমাজ থেকে বিতারিত করে চট্টগ্রাম নগরীকে মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত নগরী হিসেবে গড়ে তোলার জন্য দল-মত নির্বিশেষে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান মেয়র। সমাবেশে মেয়র বলেন, ঝাউতলা হরিজন পল্লীতে জরাজীর্ণ ভবন ভেঙ্গে ১০ তলা ভবন নির্মাণ এবং একটি স্কুল ও কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ করা হবে। প্রসঙ্গক্রমে মেয়র বলেন, ১ জানুয়ারি ২০১৭ খ্রি. থেকে প্রাথমিক ভাবে ৭টি ওয়ার্ডে ডোর টু ডোর বর্জ্য সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু করা হবে এবং ১৬ জানুয়ারি থেকে জামালখান ওয়ার্ড সহ ১০টি ওয়ার্ডে ডোর টু ডোর কার্যক্রম শুরু হবে। তিনি বলেন, ডোর টু ডোর আবর্জনা সংগ্রহ কার্যক্রম বিকাল ৩ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত চলবে। এ বর্জ্য সংগ্রহ কার্যক্রম শুরুর পর থেকে রাস্তায় বা ডাস্টবিনে ইচ্ছায় অনিচ্ছায় কেউ ময়লা ফেললে তার বিরুদ্ধে ম্যাজিস্ট্রেট আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। ডোর টু ডোর বর্জ্য সংগ্রহ কার্যক্রম সফল করার জন্য মেয়র নগরবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন। ৩০ ডিসেম্বর ২০১৬ খ্রি. শুক্রবার, সন্ধ্যায় ঝাউতলা সমাজ উন্নয়ন পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত আহবায়ক হাজী মনির আহমদের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব আহমদ ছোবহান এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এ সব কথা বলেন। সমাবেশে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঝাউতলা সমাজ উন্নয়ন পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা ঝাউতলা জামালখান কদম মোবারক রহমতগঞ্জ ও আন্দরকিল্লা মহল্লা সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাজী মো. শামসুল আলম, মূখ্য আলোচক ২১ নং জামালখান ওয়ার্ড কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টি চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি এডভোকেট মো. আবু হানিফ, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম মনি, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর চট্টমেট্রো অঞ্চলের উপ পরিচালক আলী আসলাম হোসেন, নগর বাইশ মহল্লার অর্থ সম্পাদক হাজী সাহাবুদ্দীন, সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রকৌশলী বিজয় কুমার চৌধুরী কৃষান, জামলাখান ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোরশেদুল আলম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ঝাউতলা সমাজ উন্নয়ন পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মো. সোলায়মান চৌধুরী। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন ঝাউতলা সমাজ উন্নয়ন পরিষদের যুগ্ম সদস্য সচিব যথাক্রমে ইকবাল আহমেদ ইমু, নুরুল আনোয়ার চৌধুরী রিপন, মো. হাবিব খান, আবদুস ছালাম সুমন, শাহনেওয়াজ জসিম, মো. রাশেদুল আলম। সদস্য জাহেদ মিয়া, এজাজ আহমেদ, জাহাঙ্গীর, ইমরান শরীফ, মো. আজাদ, নাজিম উদ্দিন টিপু, মোহাম্মদ শফিক, নাছির, বশর, টিটু, শাহজাহান, রাজু, কালাম প্রমুখ। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের নির্বাহী সদস্য বেলাল আহমেদ, কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তদন্ত, নুর আহমেদ, ঝাউতলা সমাজ উন্নয়ন পরিষদের উপদেষ্টা হাজী আফছার উদ্দিন, মো. আইয়ুব, আন্দরকিল্লা ব্যবসায়ী কল্যাণ পরিষদের উপদেষ্টা জাবেদ আলম সুমন, ঝাউতলা কদম মোবারক মহল্লা কমিটির প্রচার সম্পাদক মো. মাঈনুল, রিয়াজ উদ্দিন বাজার আইন শৃংখলা উন্নয়ন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক মো. ইদ্রিস, কোতোয়ালী থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সৈকত দাশ, চেরাগী বয়েজ ক্লাবের উপদেষ্টা মো. লেয়াকত আলী, সভাপতি মো. হারুন, বৌদ্ধ যুব সমিতির সহ সভাপতি সিজার বড়–য়া, সভার শুরুতে ঝাউতলা সমাজ উন্নয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথি সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও ক্রেস্ট প্রদান করেন সংগঠনের উপদেষ্টাবৃন্দ।

মতামত...