,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মানিকছড়িতে নানা আয়োজনে মহান বিজয় দিবস পালিত

আবদুল মান্নান,মানিকছড়ি,মহান বিজয় দিবস-২০১৬ উদযাপন উপলক্ষে মানিকছড়ি উপজেলা প্রশাসন ব্যাপক আয়োজনে দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পন, শান্তির প্রতিক পায়রা উড়িয়ে এবং জাতীয় পতাকা উত্তালনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচী শুরু হয়।
ভোর সাড়ে ৬টায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিনিতা রানী,উপজেলা চেয়ারম্যান ম্্রাগ্য মারমা, অফিসার ইনচার্জ মো. আবদুর রকিব, ভাইস চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম বাবুল, রাহেলা আক্তার, ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম ফারুক, মো. জয়নাল আবেদীনসহ প্রশাসনিক দপ্তরের সকল কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পন শুরু হয়। উপজেলা প্রশাসনের পর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, সন্তান কমান্ড, থানা পুলিশ,আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি, একতা যুব সংঘ, রাণী নিহার দেবী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, তিনটহরী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ, মানিকছড়ি ইংলিশ স্কুল, মানিকছড়ি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, গিরিকলি কিন্ডারগার্টেন এন্ড পাবলিক স্কুল, মেমোরী কিন্ডার গার্টেন এন্ড পাবলিক স্কুল, নতুন কুঁড়ি কিন্ডার গার্টেন, মাতৃছায়া কিন্ডার গার্টেন, মানিকছড়ি আইডিয়াল কলেজ, বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদলসহ উপজেলার বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন,এনজিও শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পন করেন। বিভিন্ সংগঠন ও রাজনৈতিক দলগুলো নিজস্ব ব্যানারে দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে বিজয় দিবস সফল হোক, সফল হোক, শ্লোগানে শ্লোগানে দিনটিকে স্মরণ করেন। পরে সকাল সাড়ে ৮টায় রাণী নিহার দেবী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রশাসনের আয়োজনে নানা অনুষ্ঠানের শুরুতে শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে এবং জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিনিতা রানী,উপজেলা চেয়ারম্যান ম্্রাগ্য মারমা, অফিসার ইনচার্জ মো. আবদুর রকিব। পরে অতিথিরা প্যারেড পরিদর্শন(কুচকাওয়াজ) করেন। এর পর শুরু হয় ডিসপ্লে, ক্রীড়ানুষ্ঠান, যেমন খুশি,তেমন সাজ, চিত্রাংকণ, রচনা প্রতিযোগিতা, মোমবাতি প্রজ্জলন (মহিলা অতিথি), চোখ বেঁধে হাঁড়ি ভাঙ্গা(পুরুষ), মিউজিকেল চেয়ার(কলেজ ছাত্রী)সহ নানা প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতা শেষে বেলা সাড়ে ১১টায় অনুষ্টিত হয় মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনা।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিনিতা রানী’র সভাপতিত্বে উক্ত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেনম উপজেলা চেয়াম্যান ম্্রাগ্য মারমা। বিশেষ অতিথি ছিলেন, অফিসার ইনচার্জ মো. আবদুর রকিব, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এম.এ. রাজ্জাক, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম বাবুল, রাহেলা আক্তার, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. সফিউল আলম চৌধুরী, আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. জয়নাল আবেদীন, সেক্রেটারী মো. মাঈন উদ্দীন, ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক, মো. শহিদুল ইসলাম মোহন, মো. রফিকুল ইসলাম বাবুল,মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড সভাপতি মো. শাহ্ আলমসহ শিক্ষক, সাংবাদিক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ও ক্রীড়ামুদী শিক্ষার্থীরা।
এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানেরমধ্য দিয়ে এবং ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি উল্লেখ করে মুক্তিযোদ্ধারা বক্তব্য রাখেন। মুক্তিযোদ্ধারে মুখে যুদ্ধের ঘটনাপ্রবাহ শুনে নতুন প্রজন্মরা শিশু-কিশোর ও যুবকরা দেশপ্রেমে অনুপ্রাণিত হয়। অনুষ্ঠান শেষে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে শীতের কম্বল, নগদ অর্থ বিতরণসহ মধ্যাহ্ন ভোজের ব্যবস্থা করা হয়।
বিকাল সাড়ে ৩টায় উপজেলা চেয়ারম্যান একাদশ বনাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার একাদশের মাঝে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্টিত হয়। গোল শুন্য ভাবে খেলা শেষে সকল অংশগ্রহনকারীর মাঝে পুরুস্কার তুলে দেন অতিথিরা।
সন্ধ্যা সাড়ে ৫টায় উপজেলা টাউন হলে অনুষ্টিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা। উপজেলা শিল্পকলা একাডেমীর আয়োজনে মনোজ্ঞ সন্ধ্যায় গান ও নৃত্য পরিবেশন করেন শিল্পকলা একাডেমীর ক্ষুদে শিল্পিরা। স্থানীয় শিল্পিদের পাশাপাশি অনুষ্ঠানে এটিএন বাংলার শৈল সমতল অনুষ্ঠানের শিল্পি দোঅংগ্য মারমা গান পরিবেশন করেন। অনুষ্টান শেষে অতিথিরা শিল্পিদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

মতামত...