,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মানিকছড়িতে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থীরাই জয়ী


aআবদুল মান্নান,
মানিকছড়ি, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ খাগড়াছড়ি, ততৃীয় দফা ইউপি নির্বাচনে গতকাল ২৩ এপ্রিল উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের ২৬টি কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোগ গ্রহন সম্পন্ন হয়েছে। একটিতে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় এবং অন্য দু’টিতে ভোটে আ’লীগের ৩ চেয়ারম্যান প্রার্থী বেসরকারীভাবে বিজয়ী হয়েছে।
উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, মানিকছড়ির চারটি ইউনিয়নের মধ্যে ৩নং যোগ্যাছোলা ইউপি’র সীমানা বিরোধ ও ভোটার জটিলতার কারণে নির্বাচনের দু’দিন আগে ওই ইউপি’র নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করে আদালত। ফলে তিনটি ইউপি’র ২৬টি কেন্দ্রে গতকাল ভোটারদের ব্যাপক উপস্থিতি ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। সকাল ৮ থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোট প্রদান করেন ভোটাররা।
উপজেলার রিটার্নিং অফিসে প্রিসাইডিং অফিসার কর্তৃক দাখিলকৃত ফলাফলে দেখা গেছে, ১ নং মানিকছড়ি সদর ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের একক প্রার্থী মো. শফিকুর রহমান ফারুক ৬ হাজার ৪ শত ৫৮ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছে। তাঁর নিকটতম বিএনপি’র প্রার্থী মো. আবুল কাশেম পেয়েছেন ৩ হাজার ১ শত ৬৭ ভোট। সংরক্ষিত সদস্য পদে নির্বাচিতরা হলেন, ১,২,৩ ওয়ার্ডে নুরুন নাহার বেগম ১হাজার ৯ শত ৩ ভোট। নিকটতম শিউলি বেগম ১হাজার ১শত ২২ ভোট। ৪,৫,৬ ওয়ার্ডে নাছিমা বেগম পেয়েছেন ১ হাজার ৫শত ৭১ভোট। নিকটতম শাহানাজ পারভীন পেয়েছেন ১হাজার ১ শত ১৭ভোট। ৭,৮,৯ ওয়ার্ডে মনোয়ারা বেগম পেয়েছেন ১ হাজার ৮ শত ৪৮ ভোট, নিকটতম নুরজাহান আফরিন লাকী পেয়েছেন ১ হাজার ১ শত ৬০ভোট। সাধারণ সদস্য পদে ১ নং ওয়ার্ডে আপ্রুসি মগ পেয়েছেন ৭ শত ৯৫ ভোট, নিকটতম মো. হাফিজুর রহমান পেয়েছেন ৫ শত ৯২ ভোট। ২ নং ওয়ার্ডে মো. মোশারফ হোসেন পেয়েছেন ৭শত ৪৪ ভোট, নিকটতম মোহাম্মদ গোলাম হোসেন ৫ শত ৯৬ ভোট। ৩ নং ওয়ার্ডে চলাপ্রু মারমা (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায়)। ৪ নং ওয়ার্ডে মো. ইদ্রিস ইসলাম বাচ্চু (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায়)। ৫ নং ওয়ার্ডে মংশেপ্রু মারমা পেয়েছেন ৩ শত ৪০ভোট,নিকটতম মো. শহিদুল ইসলাম পেয়েছেন ৩ শত ৩৪ ভোট। ৬ নং ওয়ার্ডে মো. আইয়ূব আলী পেয়েছেন ৪ শত ৩৬ ভোট, নিকটতম মো. জয়নাল আবেদীন ভূঁইয়া পেয়েছেন ৪শত ২৫ ভোট। ৭ নং ওয়ার্ডে মো. আবদুল মন্নান পেয়েছেন ৪ শত ৪ ভোট, মো. আবদুল লতিফ পেয়েছেন ৩ শত ৪০ ভোট। ৮ নং ওয়ার্ডে মো. কামাল হোসেন পেয়েছেন ৫ শত ৬৫ ভোট, নিকটতম লাব্রেঅং মারমা পেয়েছেন ৪ নশত ১৫ ভোট। ৯ নং ওয়ার্ডে মো. সফিকুল ইসলাম পেয়েছেন ৭ শত ২৫ ভোট,নিকটতম মো. নাছির মিয়া পেয়েছেন ৫ শত ১৯ভোট।
২ নং বাটনাতলী ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের একক প্রার্থী মো. শহীদুল ইসলাম (মোহন) ৪ হাজার ৪০ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত। নিকটতম বিএনপি প্রার্থী আবদুল কাদের পেয়েছেন ২ হাজার ৫শত ৯৬ ভোট। সংরক্ষিত সদস্য পদে বিজয়রা হলেন,(১,২,৩) ওয়ার্ডে ¤্রশে মারমা পেয়েছেন ৮শত ২১ ভোট, নিকটতম হাসিনা বেগম পেয়েছেন ৬ শত ৫৮ ভোট । (৪,৫,৬)ওয়ার্ডে সাফিয়া বেগম পেয়েছেন ৯শত ৩৪ ভোট, নিকটতম কানিজ ফাতেমা পেয়েছেন ৯ শত ২৫ ভোট। (৭,৮,৯) ওয়ার্ডে চিংনু বাই মারমা পেয়েছেন ৮শত ৬৮ ভোট, নিকটতম হাসিনা বেগম পেয়েছেন ৬ শত ৪৯ ভোট। সাধারণ সদস্য পদে ১ নং ওয়ার্ডে মো. আবু তাহের ভূঁইয়া পেয়েছেন ৩৬৮ ভোট,নিকটতম সাথোয়াই অং মারমা পেয়েছেন ৩৫৫ ভোট । ২ নং ওয়ার্ডে সুই-থোয়াইপ্রু মারমা পেয়েছেন ২১১ ভোট,নিকটতম আদৌ মারমা পেয়েছেন ২০০ভোট। ৩ নং ওয়ার্ডে মংপাইপ্রু মারমা পেয়েছেন ২৩৫ ভোট, নিকটতম মো. আদম আলী পেয়েছেন ২২৬ ভোট। ৪ নং ওয়ার্ডে মো. রমিজ মিয়া পেয়েছেন ৫ শত ৬৫ ভোট, নিকটতম মো. শফিকুর রহমান পেয়েছেন ৫ শত । ৫ নং ওয়ার্ডে মো.সুরুজ মিয়া পেয়েছেন ২৯৯ ভোট,নিকটতম অংগ্যজাই মারমা পেয়েছেন ২১৪ ভোট। ৬ নং ওয়ার্ডে মো. আবুল হাশেম পেয়েছেন ৩৭৪ ভোট,নিকটতম মো. সিরাজুল ইসলাম পেয়েছেন ২৯৫ভোট। ৭ নং ওয়ার্ডে আবদুল মমিন পেয়েছেন ৫১৫ ভোট, নিকটতম সাজাইউ মারমা পেয়েছেন ১৫০ ভোট। ৮ নং ওয়ার্ডে সাগর ও লাব্রেচাই মারমা পেয়েছেন ৩ শত ৭৫ ভোট, নিকটতম মো.মুসলিম উদ্দীন সাগর পেয়েছেন ৩ শত ৫১ ভোট । ৯ নং ওয়ার্ডে মো. জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া পেয়েছেন ৩ শত ৬৪ ভোট, নিকটতম কান্তরাই ত্রিপুরা পেয়েছেন ২ শত ৪২ ভোট ।
৪ নং তিনটহরী ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগ প্রার্থী মো. রফিকুল ইসলাম (বাবুল) বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত। সংরক্ষিত সদস্য পদে বিজয়ীরা হলেন ১,২,৩ ওয়ার্ডে আলেয়া বেগম (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায়)। (৪,৫,৬)ওয়ার্ডে হাজেরা খাতুন পেয়েছেন ৯ শত ৬৯ ভোট, নিকটতম আপ্রুমা মারমা পেয়েছেন ৭ শত ৯৪ ভোট। (৭,৮,৯) ওয়ার্ডে ফরিদা বেগম পেয়েছেন ৮শত ৬৩ ভোট। নিকটতম চাইনুচিং মারমা ৭ শত ৯০ ভোট। সাধারণ সদস্য পদে ১ নং ওয়ার্ডে কামাল পাশা পেয়েছেন ২৯৮ভোট, নিকটতম চহলাপ্রু মারমা পেয়েছেন ২২৫ ভোট। ২ নং ওয়ার্ডে মো. বাহার মিয়া পেয়েছেন ৪১৮ ভোট,নিকটতম মো. আলমগীর হোসেন পেয়েছেন ২৬৭ ভোট। ৩ নং ওর্য়াডে মো. আবুল কালাম আজাদ(বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায়)। ৪ নং ওয়ার্ডে মো. আলী আশ্রাফ পেয়েছেন ৭ শত ৭৬ ভোট, নিকটতম মো.রমজান হোসেন পেয়েছেন ২ শত ৩৬ ভোট। ৫ নং ওয়ার্ডে ¤্রাসাথোয়াই মারমা পেয়েছেন ৩ শত ৫২ ভোট, নিকটতম মিজানুর রহমান সরকার পেয়েছেন ১শত ১৫ ভোট। ৬ নং ওয়ার্ডে মো. জাহাঙ্গীর হোসেন (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায়)। ৭ নং ওয়ার্ডে ক্যজাই মারমা (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায়) । ৮ নং ওয়ার্ডে মোশারফ হোসেন, ৯ নং ওয়ার্ডে কাজী জয়নাল আবেদীন পেয়েছেন ৫ শত ৯ ভোট, নিকটতম মো. জাহাঙ্গীর আলম পেয়েছেন ১ শত ১৭ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। রাত সাড়ে ৯টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার যুথিকা সরকার, রির্টানিং অফিসার সৈয়দা সাদিকা সুলতানা ও মো.সাইফুল ইসলাম চৌধুরীর উপস্থিতিতে বেসরকারীভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করেন ।

মতামত...