,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

‘মিশন নাহার’র নিজামীর ৫ ফ্ল্যাট বাজেয়াপ্ত হচ্ছে

aনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ  মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসি কার্যকর হয়েছে শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী মতিউর রহমান নিজামী পরিবারকে ছাড়তে হচ্ছে রাজউকের বরাদ্দকৃত প্লটে নির্মিত পাঁচটি ফ্ল্যাট।

রাজধানীর বনানীর ১৮ নম্বর রোডের ৬০ নম্বর প্লটটি নিজামীকে বরাদ্দ দিয়েছিলো বিএনপি-জামায়াত নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকার। পরবর্তীতে একটি ডেভেলপার কোম্পানিকে দিয়ে ওই প্লটে বাড়ি তৈরি নেন তিনি। ‘মিশন নাহার’ নামের ওই ছয়তলা বাড়িটিতে মোট দশটি ফ্ল্যাটের পাঁচটি নিজামীর।

গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বুধবার ১৩ জুলাই ঘোষণা দিয়েছেন, যুদ্ধাপরাধীদের বরাদ্দ দেওয়া সরকারি প্লটগুলো বাতিল করা হয়েছে। গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি সাংবাদিকদের এ বিষয়ে বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের নামে বরাদ্দকৃত যেসব প্লট বা ফ্ল্যাটে ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি কাজ করছে, তারা তাদের অংশ পাবে। বাকি অংশ সরকার নিয়ে নেবে।

 জানা গেছে, গুলশান-বনানীকে বিভাজনকারী ঝিলের পাশ ঘেঁষেই জে ব্লকে দাঁড়িয়ে আছে অফ হোয়াইট রঙের ‘মিশন নাহার’। বাড়িটি বানিয়েছে মিশন ডেভেলপার লিমিটেড। এ বাড়ির নামের প্রথম অংশ ডেভেলপার কোম্পানির নামের অংশবিশেষ এবং শেষ অংশটি নিজামী স্ত্রীর নামের শেষ অংশ। নিজামীর স্ত্রীর নাম শামসুন নাহার, যিনি জামায়াতের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।

ছয়তলা বাড়িটির নিচতলায় পার্কিং। আর ওপরের পাঁচটি ফ্লোরে মোট ১০টি ফ্ল্যাটের নিজামীর ৫টি ফ্ল্যাট রয়েছে। আর পাঁচটি ডেভেলপার কোম্পানির। ৫টি ফ্ল্যাটের মধ্যে ৬এ এবং ৬বি ফ্ল্যাট (টপ ফ্লোর) দু’টিতে নিজামীর পুরো পরিবার বসবাস করে। আর বাকি ৩টি ভাড়া দেওয়া হয়েছে।

পঞ্চম যুদ্ধাপরাধী হিসেবে গত ১০ এপ্রিল রাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি কার্যকর করা হয়।

 

মতামত...