,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মীরসরাইয়ে ভোটের আগে ভোট!

aমীরসরাই সংবাদদাতা, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ চট্টগ্রাম,গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় হয়ে গেল ভোট যুদ্ধ। জেতার লড়াইয়ে অগ্নিপরীক্ষা। জিতলে আলাদীনের আশ্বর্য প্রদীপ পাওয়ার মতো অনুভূতি। আসন্ন ইউপি নির্বাচনে কাকে ছেড়ে কাকে এককভাবে দলীয় মনোনয়ন দেয়া যায় তা নিরসনে চট্টগ্রামের মীরসরাই উপজেলা আওয়ামীলীগ প্রতিটি ইউনিয়নে প্রার্থী নির্ধারনে তীণমূল সদস্যদের গোপন ভোট কার্যক্রম। দলে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার চর্চা করতে ভোটের আগেই ভোটের আয়োজন করেছে আওয়ামীলীগ।
এবার প্রথমবারের মত ইউপি নির্বাচন দলীয় প্রতীকে হচ্ছে। হাট-বাজার, গ্রামগঞ্জ, রাস্তাঘাট, মাঠে ময়দানে চলছে আগামী নির্বাচনের সমীকরণ। জাতীয় নির্বাচনের আদলে কাউন্সিলরদের ভোটে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের নির্বাচন করা হয়েছে। আগামী ৪ জুন মীরসরাইয়ের ১৫টি ইউনিয়নে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনের আগেই
যেন প্রত্যেক ইউনিয়নে নির্বাচনী আমেজ সৃষ্টি হয়েছে। সাথে সরগরম হয়ে উঠেছে ভোটের হাওয়া।

উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা জানান, ৭টি ইউনিয়নে ইতিমধ্যে আওয়ামীলীগের তৃণমূল ভোট সম্পন্ন হয়েছে। গোপন ব্যালেটের মাধ্যমে জেলা উপজেলা পর্যায়ের প্রভাবশালী নেতাদের উপস্থিতিতে ভোট গ্রহণ করা হয়। ভোটের আগে প্রার্থী নির্ধারণে দলীয় নেতাদের ভোট গ্রহনের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে পজেটিভ দেখছেন সচেতন মহল।

আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতাদের সরাসরি ভোটে ৭টি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন যথাক্রমে ১নং করেরহাট ইউনিয়নে এনায়েত হোসেন নয়ন, ১০নং মিঠানালা ইউনিয়নে আলহাজ্জ্ব মোঃ খায়রুল আলম , ১১নং মঘাদিয়া ইউনিয়নে জাহাঙ্গীর হোসাইন মাষ্টার, ১২নং খৈয়াছরা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান জাহেদ ইকবাল চৌধুরী, ১৩নং মায়ানী ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান কবির নিজামী, ১৪নং হাইতকান্দি ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, ১৫নং ওয়াহেদপুর ইউনিয়নে ফজলুল কবির ফিরোজ। নৌকা প্রতীকের প্রার্থীদের মনোনয়ন দিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা আক্তার তবে আসল লড়াই হবে আগামী ৪জুন।

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক জসীম উদ্দিন, এভাবে ভোটের মাধ্যমে প্রার্থী নির্বাচন করায় দলের মধ্যে গণতন্ত্রের চর্চা বেড়েছে। পাশাপাশি দলের তৃণমূল নেতাকর্মীদের মতামতের প্রতিফলন হয়েছে।
এদিকে নৌকার বিপরীতে ৭টি ইউনিয়নে ধাণের শীষ প্রতীকের প্রার্থী চূড়ান্ত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক নুরুল আমিন। প্রার্থীরা হলেন – করেরহাট ইউনিয়নে কামাল উদ্দিন, মিঠানালা ইউনিয়নে এডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন চৌধুরী মানিক, মঘাদিয়া ইউনিয়নে কামরুল আলম, খৈয়াছরা ইউনিয়নে গিয়াস উদ্দিন, মায়ানী ইউনিয়নে নুর হোসেন, হাইতকান্দি ইউনিয়নে আবু তাহের মাসুদ এবং ওয়াহেদপুর ইউনিয়নে সালাউদ্দিন সেলিম দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনীত হয়েছেন।

বিএনপির পক্ষ থেকে প্রত্যেক ইউনিয়নে বর্ধিত সভা ডেকে ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি, সম্পাদক ও অর্থ সম্পাদক স্বাক্ষরিত মনোনীত ব্যক্তির নাম চূড়ান্ত করে কেন্দ্রীয় বিএনপিতে পাঠানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রার্থীদের ধাণের শীষ প্রতীক বরাদ্ধ দেন।

মতামত...