,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মীর কাসেম আলী প্রাণভিক্ষায় ‘রিজনেবল সময়’ পাচ্ছেন

স্টাফ রিপোর্টার, বিডিনিউজ রিভিউজঃ মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলী প্রাণভিক্ষার বিষয়ে ‘রিজনেবল কিছু সময়’ পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন কারা মহাপরিদর্শক (আইজি প্রিজন) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন।

বুধবার (৩১ আগস্ট) বিকেলে পুরান ঢাকায় কারা অধিদফতরে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা জানান।

আইজি প্রিজন বলেন, মীর কাসেম আলীকে বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় রায়ের কপি পড়ে শোনানো হয়েছে। এরপর তার কাছে প্রাণভিক্ষার বিষয়টি জানতে চাওয়া হয়েছে। তিনি কিছু সময় চেয়েছেন, বলেছেন চিন্তা-ভাবনা করে জানাবেন। আমরাও তাকে কিছু ‘রিজনেবল সময়’ দেবো।

তাহলে তাকে কতো সময় দেওয়া হচ্ছে? এমন প্রশ্নের জবাবে সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন বলেন, পরিস্থিতিই বলে দেবে তিনি কতোক্ষণ সময় পাচ্ছেন।

জেল কোড অনুসারে একজন ফাঁসির আসামি প্রাণভিক্ষার জন্য ৭ দিন সময় পেয়ে থাকেন- মীর কাসেমও তেমন সময় পাচ্ছেন কিনা- এমন এক প্রশ্নের জবাবে আইজি প্রিজন বলেন, এ নিয়ম সাধারণ দণ্ডপ্রাপ্তদের জন্য। মীর কাসেম আলী হলেন আইসিটি অ্যাক্ট এর দণ্ডপ্রাপ্ত। তিনি এর আওতাভুক্ত নন। তিনি ‘রিজনেবল সময়’ পাবেন।

কাসেম আলীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর কোথায় হবে- সে বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে আইজি প্রিজন জানান, এখনও নির্ধারিত হয়নি। আলোচনাসাপেক্ষে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

মৃত্যুদণ্ডের খবর সংবাদমাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচারের (লাইভ) বিষয়ে সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন বলেন, এ ধরনের খবর শিশুদের মানসিকতার ওপর প্রভাব ফেলে। একজনকে ফাঁসি দেওয়া হচ্ছে, এটা জেনে তারা মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এজন্য এভাবে লাইভ না দেখানোর অনুরোধ করবো।

পরিত্যক্ত কেন্দ্রীয় কারাগার নিয়ে পরিকল্পনা বিষয়ে আইজি প্রিজন বলেন, এখানে তিনটি জাদুঘর করার পরিকল্পনা আছে। এ বিষয়ে ওপেন টেন্ডার ডাকা হবে। যাদের নকশা পছন্দ হবে, তাদের কাজ দেওয়া হবে।

কারাগারে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হল স্থাপনের দাবির বিষয়ে তিনি বলেন, কারাগার স্থানান্তর করা হয়েছে পুরান ঢাকার গিঞ্জি পরিবেশ যেন কমে সেজন্য। এখন যদি হল তৈরি করা হয়, তাহলে সে উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন হবে না।

আইজি প্রিজন জানান, কিছু দিনের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী কেন্দ্রীয় কারাগার পরিদর্শন করবেন। কারাগার নিয়ে পরিকল্পনা অনুযায়ী সব দেখবেন তিনি।

মতামত...