,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মোদির শিক্ষা ডিগ্রি ভুয়া

modi -  kejriwalনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা,  মোদির স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি ভুয়া, অন্য এক নরেন্দ্র মোদির ডিগ্রিকে প্রধানমন্ত্রীর বলে চালানো হচ্ছে। এমনটিই দাবি করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমী পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

নরেন্দ্র মোদির স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রির তথ্য জানতে কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছিলেন কেজরিওয়াল। পরে গুজরাট বিশ্ববিদ্যালয় প্রধানমন্ত্রীর স্নাতকোত্তর ডিগ্রির খোঁজ দিয়েছে। কিন্তু দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ডিগ্রির সন্ধান পাওয়া যায়নি। যদিও সংবাদমাধ্যমে নরেন্দ্র মোদির একটি স্নাতক ডিগ্রির ছবি প্রকাশিত হয়েছে।

শুক্রবার নরেন্দ্র মোদির ডিগ্রিকে ভুয়া বলে দাবি করেন কেজরিওয়াল। কেজরিওয়াল জানান, আম আদমি পার্টির সদস্যরা দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেকর্ড খুঁজেছেন। কিন্তু ‘নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদির’র কোনো খোঁজ মেলেনি। ১৯৭৫ সালে ‘নরেন্দ্র কুমার মহাবীর প্রসাদ মোদি’ নামে একজন ভর্তি হয়েছিলেন। তিনি রাজস্থানের আলওয়ারের বাসিন্দা মহাবীর প্রসাদ মোদির ছেলে। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রীর বাড়ি গুজরাটে।

কেজরিওয়ালের বক্তব্য, ‘প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য ডিগ্রির প্রয়োজন নেই। কিন্তু এক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ উঠছে। কারণ, তিনি নির্বাচন কমিশনে দেওয়া হলফনামাতেও দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএ পাশ করার কথা বলেছেন।’

সংবাদমাধ্যমের একাংশের দাবি, তারা ‘নরেন্দ্র কুমার মহাবীর প্রসাদ মোদি’রও খোঁজ পেয়েছে। সেই মোদি জানিয়েছেন, তিনি দিল্লির শ্রীরাম কলেজের ছাত্র ছিলেন।

— আনন্দবাজার ও ইকোনোমিক টাইমস

মতামত...