,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

মোবাইলের হেডফোন নিয়ে কথা কাটাকাটি জের ছুরিকাঘাত ছাত্রলীগ কর্মী খুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম::চট্টগ্রাম শহরে আসেন পরিবারের একমাত্র পরিবারের আর্থিক উৎসে একমাত্র অবলম্বন কাঁকন। সে অপরাজনীতির শিকার হলেন। গত দুইদিন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে জীবনের সাথে বাজি ধরে শেষ পর্যন্ত গতকাল মঙ্গলবার ভোররাতে সব বন্ধন ছিন্ন করে চলে যান না ফেরার দেশে। দোহাজারীর মল্লিক পাড়ার বাসিন্দা নেপাল মল্লিকের ছেলে নিহত কাঁকন মল্লিক। ছেলে হারানোর শোকে বাকরুদ্ধ মা মিনতি মল্লিক। গত ২০ অক্টোবর নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন মোহরা সিএমবি (বালুরটাল ওয়েল টাওয়ােেরর পাশে) এলাকার স্কুলপড়ুয়া ছাত্রদের মাঝে মোবাইল ফোনের হেডফোন নিয়ে হাতাহাতি হয়। এ হাতাহাতি মীমাংসা করেন নগর ছাত্রলীগের কার্যনিবাহী সদস্য আলাউদ্দিন বাবু। ঘটনার জের ধরে দুদিন পর ২২ অক্টোবর সন্ধ্যায় স্থানীয় ছাত্রলীগ কর্মী আজগর আলীর সাথে বাবুর কথা কাটাকাটি হয়। এসময় তারা বাবুকে মারধর করতে চাইলে ২৬ বছরের যুবক কাঁকন মল্লিক তাদের বাধা দেন। ঝগড়ার এক পর্যায়ে আজগর আলীর লোকজন কাকন মল্লিককে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় সেদিন ছুরিকাঘাতে কাকনসহ সোহেল, আজিম উদ্দিন ও রনি দাস নামে স্থানীয় ছাত্রলীগকর্মী আহত হন।

নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী নগর ছাত্রলীগের কার্যনিবাহী সদস্য আলাউদ্দিন বাবু বলেন, আমি এলাকায় মাদক থেকে শুরু করে অনৈতিক কর্মকা–ের বিরুদ্ধে সোচ্চার সবসময়। ফলে মোহরা এলাকায় কোনো অনৈতিক কাজ করতে পারছিল না তারা। তাই আমাকে তারা মেরে ফেলতে চেয়েছিল। কিন্তু তারা আমার বদলে একটি অসহায় পরিবারের শেষ সম্বলকে মেরে ফেলল। আমি প্রশাসনের কাছে এই হত্যাকা–ের বিচার চাই।
উল্লেখ, ৪ বছর আগে অপরাজনীতির শিকার হয়েছিলেন বায়েজিদের মেহেদী হাসান বাদল, দেড় বছর আগে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সোহেল, গত ৬ অক্টোবর খুন হন নগর ছাত্রলীগের সহ–সম্পাদক সুদীপ্ত বিশ্বাস। সর্বশেষ খুন হলেন কাকন মল্লিক।

চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ–সভাপতি আল মামুন জানান, প্রতিপক্ষকে প্রতিহত করতে আমাদের কর্মীকে খুন করা হচ্ছে। একের পর এক কর্মী খুন হচ্ছে। সকল হত্যাকা–ের সুষ্ঠু তদন্ত করে খুনের সাথে জড়িত সবাইকে বিচারের আওতায় আনতে হবে। না হলে ধারাবাহিকভাবে বাড়বে খুনের ঘটনা। যা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

চান্দগাঁও থানার ওসি আবুল বাশার বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত শুক্রবার কিছু যুবকের সাথে কাঁকনের কথাকাটাকাটি হয়। এর জের ধরে রবিবার কাঁকনকে তারা ছুরিকাঘাত করে। এ ঘটনায় মা মিনতি মল্লিক বাদি হয়ে চারজনকে এজাহারভুক্ত ও ১০/১২ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি দিয়ে মঙ্গলবার একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মতামত...