,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

যুক্তরাষ্ট্রের সুপার টিউসডে তে হিলারির জয় ধরাশায়ী ট্রাম্প

aনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা,  যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ক্ষমতাসীন ডেমোক্র্যাটিক ও বিরোধী রিপাবলিকান উভয় পার্টির দলীয়প্রার্থী বাছাইয়ে একযোগে ১২টি অঙ্গরাজ্যের ভোটগ্রহণ (ককাস)  মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিনটিকে ‘সুপার টিউসডে’ বলা হয়। ভোটে রিপাবলিকান পার্টি প্রেসিডেন্ট প্রার্থী মার্কো রুবিও ও ট্রেড ক্রুজকে ধরাশায়ী করেছেন বিতর্কিত ও সমালোচিত ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী সাবেক ফার্স্টলেডি হিলারি ক্লিনটন বার্নি স্যান্ডার্সের বিরুদ্ধে ব্যাপক জয় পেয়েছেন।

আরকানসাস, আলবামা, ম্যাসাচুসেটস, ওকলাহোমা, টেনেসি, জর্জিয়া, ভারমন্ট, ভার্জিনিয়া, কলরাডো ও টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের ভোটের ফল ইতোমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে। ভারমন্ট ও ওকলাহামা ছাড়া ওইসব অঙ্গরাজ্যে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী হিসেবে জয় পেয়েছেন হিলারি ক্লিনটন। ওই দুই অঙ্গরাজ্যে জিতেছেন হিলারির প্রতিদ্বন্দ্বী ভারমন্টের সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স। মিনেসোটা ও আমেরিকান সামোয়া অঙ্গরাজ্যে ভোটগ্রহণ হলেও এখন ফল প্রকাশ করা হয়নি।

ওই সব অঙ্গরাজ্যগুলোর মধ্যে শুধু কলরাডো ছাড়া বাকি সবগুলোতে বিরোধীদল রিপাবলিকান পার্টির ককাস ও প্রাথমিক বাছাইও অনুষ্ঠিত হয় সুপার টিউসডেতে। টেক্সাস ও ওকলাহামা বাদে বাকি সবগুলো অঙ্গরাজ্যে জয় পেয়েছেন রিপাবলিকান পার্টির বিতর্কিত প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওই দুইটি আসনে জয়ী হন টেক্সাসের সিনেটর রক্ষণশীল ট্রেড ক্রুজ। তবে এবারের ভোটে ভালো ফল করেছেন কিউবান বংশোদ্ভূত তরুণ রিপাবলিকান নেতা মার্কো রুবিও। তিনি অধিকাংশ অঙ্গরাজ্যে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিলেন। আলাস্কাতে গতকাল শুধু রিপাবলিকান পার্টির ককাস অনুষ্ঠিত হলেও এখনো ফল ঘোষণা করা হয়নি।

ওই সব অঙ্গরাজ্যে ভোটগ্রহণের আগে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের করা জনমত জরিপে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী ধনকুবের ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন এগিয়ে ছিলেন।

প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর মনোনয়ন জিততে হলে রিপাবলিকান পার্টির মোট ২৩২৪ ডেলিগেটের মধ্যে ১২৩৭ জনের সমর্থন দরকার। ‘সুপার টিউসডে’তে এর প্রায় ৪৮ শতাংশ নির্ধারিত হবে। আর ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী মনোনয়নের জন্য প্রয়োজন ২৩৮৩ ডেলিগেট। এর মধ্যে ৮৬৫ ডেলিগেটের জন্য মঙ্গলবার লড়েছেন হিলারি ক্লিনটন ও তার প্রতিদ্বন্দ্বী বার্নি স্যান্ডার্স।

গত চারটি প্রাইমারি ও ককাসে রিপাবলিকান পার্টি প্রার্থীদের মধ্যে এগিয়ে থাকা আলোচিত ব্যবসায়ী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে খোদ দলের শীর্ষ নেতাদের মধ্যেই দ্বিধা-দ্বন্দ্ব রয়েছে। দলের ভেতরেই এসব নেতা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। তাই ট্রাম্পের ভাগ্য কিছুটা মার্কো রুবিও কিংবা টেড ক্রুজের সরে দাঁড়ানোর ওপরেও নির্ভর করছে।

ডেমোক্র্যাটিক পার্টি থেকে গত চারটি ককাসের মধ্যে তিনটিতে হিলারি ক্লিনটন জয় পেলেও বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন বার্নি স্যান্ডার্স। নিউ হ্যাম্পশায়ারে সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারিকে হারিয়ে বড় জয় পান স্যান্ডার্স। মঙ্গলবারের ভোটে হিলারি বড় ধরনের জয় পেলেও নির্বাচনের মাঠ থেকে সরে দাঁড়াবেন কিনা, এমন ঘোষণা এখনো দেননি স্যান্ডার্স।   – এনবিসি

 

 

বি এন আর/০০১৬০০৩০০২/০০০৩২৬/এস

মতামত...