,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধে মীর কাশেমের ১৯৭ কোটি টাকা খরচ

aনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ রিভিউজঃ আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল স্থাপনের মাত্র ৭ মাসের মাথায় ২০১০ সালে অক্টোবরে মীর কাশেম ২.৫ কোটি ডলার বা ১৯৬ কোটি ৮৯ লাখ ৯৮ হাজার ৭৫০ টাকা প্রদান করেন যুক্তরাষ্ট্রের লবিস্ট ফার্ম ক্যাসিডো অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটস-কে। মূল লক্ষ্য ছিল মার্কিন সরকার ও বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে কথা বলে তার (মীর কাশেমের) উদ্দেশ্যে বাস্তবায়ন।

 

এ সময় ট্রাইব্যুনালের বিচারকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য আন্তর্জাতিক আরো বিভিন্ন সংস্থাকে তিনি অর্থায়ন করেছেন। সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বেশ কিছু দেশ থেকে এই সাহায্য এসেছে। যার মূল লক্ষ্য ছিল মীর কাশেম সহ জামায়াত নেতাদের বিরুদ্ধে বিচার বন্ধ করা।

 

ক্যাসিডো অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটসের সঙ্গে হওয়া মীর কাশেমের চুক্তি বিষয়টি সামনে নিয়ে আসেন তার ভাই মীর মাসুম আলী। এই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে হওয়া চুক্তি অনুসারে, গ্রাহকের চাহিদা অনুসারে প্রতিষ্ঠানটি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের সাধারণ সম্পর্ক নিয়ে মার্কিন সিনেট ও কংগ্রেস, বিচার বিভাগ সংক্রান্ত বিষয় ও দক্ষিণ এশিয়ার পররাষ্ট্র নীতি নিয়ে আলোচনা করবে।

 

২০১৫ সালের মার্চে একই প্রতিষ্ঠানকে ৫০ হাজার মার্কিন ডলার প্রদান করা হয়। মূল লক্ষ্য মার্কিন সিনেট ও কংগ্রেসে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনাল সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা সৃষ্টি। এই অর্থায়ন জড়িত ছিল দুটি প্রতিষ্ঠান- দ্য অর্গানাইজেশন ফর পিস অ্যান্ড জাস্টিস এবং হিউম্যান রাইট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ।

  • ইত্তেফাকের প্রতিবেদন

মতামত...