,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

রওশনকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ঘোষণা জাপার

rousan ershadনিজস্ব প্রতিবেদক,চট্টগ্রাম,১৮, জানুয়ারি (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম):: জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদকে জাতীয় পার্টির (জাপা) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করা হয়েছে। সোমবার রাত ৮টার দিকে রওশন এরশাদের গুলশানের বাসায় এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান বাবলু।

 

জাপা মহাসচিব বলেন, এরশাদ ছোট ভাই জিএম কাদেরকে জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও নিজের উত্তরসূরী হিসেবে যে ঘোষণা দিয়েছেন তা দলের গঠনতন্ত্র বহির্ভূত। পার্টির গঠনতন্ত্রের ৩৯ ধারা অনুসারে তিনি এ ঘোষণা দিতে পারেন না। তার এ ঘোষণায় সারাদেশে জাপা নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে।

 

সোমবার রাতে জাতীয় পার্টির প্যাডে জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুর সই করা গণমাধ্যমে বিবৃতি পাঠিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

 

সোমবারের ‘যৌথসভায় যেকোনো অবস্থায় জাতীয় পার্টির গঠনতন্ত্রকে সমুন্নত রাখার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত হয়েছে’ বলে উল্লেখ করা হয়।

 

সোমবার সন্ধ্যায় জাপার সংসদ সদস্য ও দলের জ্যেষ্ঠ কয়েকজন নেতাকে নিয়ে নিজ বাসায় বৈঠক করেন রওশন।এর পরই বিবৃতিটি প্রচার করা হয়।

 

সন্ধ্যার ওই বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু  বলেন, রোববার জিএম কাদেরকে জাপার কো-চেয়ারম্যান হিসেবে এরশাদ যে ঘোষণা দিয়েছেন সে বিষয়ে দলীয় প্রতিক্রিয়া জানাতে দলের এমপি ও সিনিয়র নেতাদের নিয়ে যৌথসভা করা হচ্ছে।

 

সোমবার বিকেলে জাপার রওশনপন্থী হিসেবে পরিচিত বর্তমান সরকারের তিন মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, মুজিবুল হক চুন্নু ও মশিউর রহমান রাঙ্গা, দলের মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুসহ ৭/৮ জন ঘনিষ্ট নেতাকে নিয়ে নিজ বাসায় বৈঠক করেন রওশন এরশাদ।

বাবলু বলেন, দলের সভাপতিমণ্ডলী ও সাংসদদের যৌথ সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি সাংবাদিকদের একটি লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান। তবে সাংবাদিকদের কোনো প্রশ্নের জবাব দেননি। তাৎক্ষণিকভাবে রওশন এরশাদেরও কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

এরশাদের অনুপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠক শেষে বাবলু বলেন, বৈঠকে যেকোনো অবস্থায় পার্টির গঠনতন্ত্র সমুন্নত রাখার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত হয়। গঠনতন্ত্রে কো-চেয়ারম্যনের কোনো পদ নেই। গতকাল পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ পার্টির প্রেসিডিয়ামসহ কোনো ফোরামে আলোচনা না করে তাঁর আপন ছোট ভাই জিএম কাদেরকে পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও তাঁর উত্তরাধীকারী ঘোষণা করেন। একইভাবে পার্টির সম্মেলনের জন্য জি এম কাদেরকে প্রস্তুতি কমিটির সভাপতি ও রুহুল আমিন হাওলাদারকে সদস্যসচিব ঘোষণা করেন। এটি সম্পূর্ণ গঠনতন্ত্রবহির্ভূত। পার্টির গঠনতন্ত্রের ৩৯ ধারা বলে কাউকে কো-চেয়ারম্যান ঘোষণা দিতে পারেন না। তাঁর এই ঘোষণার ফলে নেতা-কর্মীদের মাঝে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে।

গতকাল রোববার রংপুরে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ তাঁর ছোট ভাই ও প্রেসিডিয়াম সদস্য জি এম কাদেরকে দলের কো-চেয়ারম্যান ঘোষণা করেছেন। তিনি বলেন, আজ থেকেই গোলাম মোহাম্মদ কাদের দলের কো-চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন। এ ছাড়া আমার অবর্তমানে দলের হালও ধরবেন তিনি।এর ১দিন পরেই রওশন এরশাদকে জাতীয় পার্টির (জাপা) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করা হয়েছে।

মতামত...